ক্ষমতাসীনরাই সিটি নির্বাচনের দায়িত্বে: ফখরুল

আগের সংবাদ

অসংক্রামক রোগ প্রতিরোধে মায়েদের সচেতনতার আহ্বান

পরের সংবাদ

হেনস্থা ও ভাঙচুরের অভিযোগ ইসিতে

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: জানুয়ারি ১৪, ২০২০ , ৪:৪১ অপরাহ্ণ

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) নির্বাচন উপলক্ষে প্রচারের সময় বিএনপি কর্মীদের মারধর, হেনস্থ ও মাইক্রোফোন কেড়ে নিয়ে ভাঙচুর করা হয়েছে এমন অভিযোগ করেছেন বিএনপি মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল। আজ প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদার কাছে তিনি উত্তর সিটি নির্বাচনে ৩৮ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে লিখিত এ অভিযোগ করেন। মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) দুপুরে নির্বাচন ভবনে একজন প্রতিনিধি মারফত সিইসি কাছে ওই নালিশের একটি চিঠি পৌছে দেন তাবিথ।

চিঠিতে তাবিথ উল্লেখ করেছেন, ডিএনসিসি নির্বাচনে আমি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) মনোনীত ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি। আমার পক্ষে সিটি করপোরেশন (নির্বাচন আচরণ) বিধিমালা, ২০১৬ এর ২১ বিধি অনুযায়ী বিধিসম্মতভাবে গতকাল সোমবার (১৩ জানুয়ারি) বিকেল ৩টায় নির্দিষ্ট সময়ে মাইক্রোফোনের মাধ্যমে নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছিলো। কিন্তু, মেয়র পদে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর পক্ষে ৩৮ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী জাহাঙ্গীরের নেতৃত্বে কতিপয় উচ্ছৃঙ্খল কর্মীরা আমার ডিআইটি প্রজেক্ট এলাকায় আমার নির্বাচনী প্রচারণারতদের মাইক্রোফোন ভাঙচুর ও মারধর করেছেন।

এরূপ অনভিপ্রেত গোলযোগ ও উচ্ছৃঙ্খল আচরণ এবং বেআইনি বলপ্রয়োগ বিধিমালার ১৮ বিধির সুস্পষ্ট লংঘন। ঘটনাটির তদন্ত করে ব্যবস্থা নেবার জন্য সিইসির কাছে বিশেষভাবে অনুরোধও জানিয়েছেন তাবিথ।

যদিও ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) রিটার্নিং অফিসার মো. আবুল কাসেম জানিয়েছেন, এর আগেও তাবিথ আউয়াল দু’টি অভিযোগপত্র জমা দিয়েছেন ইসিতে।

নকি