আগুন পোহাতে গিয়ে দগ্ধ বৃদ্ধার মৃত্যু

আগের সংবাদ

বিদেশি পর্যটকদের রেকর্ড ভাঙা ঢল কুয়াকাটায়

পরের সংবাদ

ঢাকা দুই সিটি নির্বাচন

জাপা মেয়রসহ ৪৬ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২, ২০২০ , ৯:১৮ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ২, ২০২০ , ৯:১৮ অপরাহ্ণ

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) নির্বাচনে জাতীয় পার্টির মেয়র প্রার্থী কামরুল ইসলামসহ ১৮ প্রার্থীর এবং ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে বাছাইয়ের পরে ২৮ কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। এদের অধিকাংশ ঋণ খেলাপী বলে সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তা সূত্রে জানা গেছে।

বৃহস্পতিবার (২ জানুয়ারি) সকাল দশটা থেকে রাত সাড়ে ৮ টা পর্যন্ত রাজধানীর আগারগাঁওয়ে অবস্থিত স্থানীয় সরকার ইনস্টিটিউট (এনআইএলজি) ভবনে দু’সিটির মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তারা এ তথ্য জানান।

উত্তর সিটির রিটার্নিং কর্মকর্তা আবুল কাশেম জানান, ডিএনসিসিতে মেয়র পদে একজন, সংরক্ষিত নারী আসনে দুজন, সাধারণ ওয়ার্ডের ১৫ জন অর্থাৎ মোট ১৮ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে। মেয়র প্রার্থী ছয়জন, সংরক্ষিত নারী আসনে ৮৭ জন ও সাধারণ ওয়ার্ডে ৩৫৯ জনের মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। জাতীয় পার্টির মেয়র প্রার্থী কামরুল ইসলাম সংশ্লিষ্ট সিটি কর্পোরেশনের ভোটার না হওয়ায় তার মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে বলে জানান তিনি ।

রিটার্নিং কর্মকর্তা ঘোষিত উত্তরের বৈধ মেয়রপ্রার্থীরা হলেন- আওয়ামী লীগের আতিকুল ইসলাম, বিএনপির তাবিথ আউয়াল, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের শেখ মো. ফজলে বারী মাসউদ, পিডিপির শাহীন খান, এনপিপির মো. আনিসুর রহমান দেওয়ান ও বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির আহম্মেদ সাজ্জাদুল হক।

দক্ষিণে ২৮ কাউন্সিলরের মনোনয়ন বাতিল
অপর দিকে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনে সাত মেয়র প্রার্থীসহ ৫৪১ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। দক্ষিণের রিটার্নিং কর্মকর্তা আবদুল বাতেন মনোনয়ন বাছাই শেষে এ ঘোষণা দেন। আবদুল বাতেন জানান, মেয়র পদে সাতজনের মনোনয়নই বৈধ। মোট ৫৬৯জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। এদের মধ্যে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৪৬০ ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ১০২ জন ছিলেন। তাদের মধ্যে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ২৬ জন ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে দুই প্রার্থী অর্থাৎ ২৮ কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে ।

উল্লেখ্য, রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল কর্তৃপক্ষের কাছে ৫ জানুয়ারি পর্যন্ত আপিল করা যাবে। আপিল কর্তৃপক্ষ হিসেবে ঢাকা বিভাগীয় কমিশনারকে নিয়োগ করেছে নির্বাচন কমিশন। নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ঢাকার দুই সিটিতে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ৯ জানুয়ারি এবং ৩০ জানুয়ারি সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়