সড়কে দুর্ঘটনা কমলেও বেড়েছে প্রাণহানি

আগের সংবাদ

পাটকল শ্রমিকদের দাবি মানার আহ্বান বাম জোটের

পরের সংবাদ

সিটি ভোট

সিনেমা হলেও ইভিএমের প্রচারণা চলবে

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: জানুয়ারি ১, ২০২০ , ৫:৪৫ অপরাহ্ণ

ইভিএমের মাধ্যমে কীভাবে ভোট দিতে হয়, সে বিষয়ে সচেতনতা তৈরিতে প্রচার শুরু করতে যাচ্ছে নির্বাচন কমিশন। এজন্য গণমাধ্যমে প্রচারণার পাশাপাশি ইভিএমে ভোট দেয়ার বিষয়টি সিনেমা হলেও প্রচার করা হবে বলে ইসির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে ভোট গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

আজ বুধবার বিকেলে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে অবস্থিত নির্বাচন ভবনে নিজ কার্যালয়ে এসব তথ্য জানান ইসির জ্যেষ্ঠ সচিব মো. আলমগীর।  যদিও এনিয়ে বিএনপিসহ কয়েকটি দল প্রথম থেকেই আপত্তি করে যাচ্ছে। সচিব বলেন, ইভিএমের বিষয়ে যাতে ভোটার মনে কোন ভীতি বা অসচেতনতা থাকে তার জন্য প্রচারণা চালানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। বিভিন্ন জাতীয় পত্রিকায় ইভিএমে ভোট দেয়ার বিষয়ে বিজ্ঞাপন যাবে। দুই-একদিনের মধ্যে মোটামুটি সব পত্রিকায় আপনারা তা দেখতে পাবেন। এরপর তথ্য মন্ত্রণালয়ে চিঠি দেব, যেন সরকারি টেলিভিশনসহ সব বেসরকারি টেলিভিশনে তা প্রচার করা হয়। এছাড়া সিনেমা হলে সিনেমা শুরু হওয়ার আগে যেন ইভিএমের বিষয়টি দেখানো হয় । সিটি করপোরেশনকে অনুরোধ করব, বিলবোর্ডের মাধ্যমেও ইভিএমে কীভাবে ভোট দিতে হবে তা যেন দেখানো হয়।

তিনি বলেন, আমরা প্রতিটি ওয়ার্ডে ইভিএম প্রদর্শন করবো। সেখানে গিয়ে মক ভোট যেকোনো মানুষ যেকোনো দিন দিতে পারবে। কীভাবে ভোট দিতে হয়, তা সব ভোটারই নিজেই কেন্দ্রে গিয়ে প্র্যাকটিস করে আসতে পারবে বলেও জানান ইসির এ জ্যেষ্ঠ সচিব। মো. আলমগীর বলেন, ইভিএম নিয়ে দু-একজন মানুষ যে আশঙ্কা করছে, প্রচারণার পর এগুলো থাকবে না। তাদের আস্থা ফিরে আসবে বলে আমার মনে হয়। কোনো প্রার্থী যদি ভোট আবার গণনা করতে চান, ইভিএমে সেটার সুযোগ রয়েছে বলেও জানান ইসি সচিব।

তিনি জানান, তারা নির্বাচন কমিশনের কাছে ভোট পুনঃগণনার জন্য আবেদন করতে পারেন। তাদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে টেকনিক্যাল টিম গঠন করে তা তদন্ত করা হবে। আবার কমিশনের ভোট গণনায় সন্তুষ্ট না হলে তারা আদালতে যেতে পারেন। তখনো আবার টিম গঠন করে তদন্ত করা হবে।
এ দুসিটির মনোনয়ন জমা হয়েছে, মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই হবে বৃহষ্পতিবার, প্রত্যাহারের শেষ দিন ৯ জানুয়ারি। আর ভোট হবে ৩০ জানুয়ারি।

নকি