ত্যাগীদের নিয়ে কমিটি করার অঙ্গীকার জেলা নেতাদের

আগের সংবাদ

প্রাইভেটকারে ২২ হাজার ইয়াবাসহ বনানীতে আটক ২

পরের সংবাদ

বড় দিনের ব্যস্ততায় টনি-প্রিয়া

মেলা প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: ডিসেম্বর ২১, ২০১৯ , ৭:১৭ অপরাহ্ণ

টনি ডায়েস ও প্রিয়া ডায়েস। টেলিভিশন নাটকের দর্শকপ্রিয় এই দম্পতি বর্তমানে আমেরিকায় বসবাসরত। পরিবারের অন্য সদস্যরা সেখানে থাকায় স্থায়ীভাবেই বাস করছেন টনি ও প্রিয়া। আগামী ২৫শে ডিসেম্বর খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব বড়দিন। প্রতিবারের মতো এবারো সপ্তাহখানেক আগে থেকেই বড়দিনের বাজার শুরু করেছিলেন টনি ডায়েস। বড়দিনের আয়োজন নিয়ে আমেরিকা থেকে টনি ডায়েস জানান, আমেরিকায় বড়দিন কেবল খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের উৎসব নয়। আমেরিকানরা বড়দিনকে সার্বজনীন করেছে, যার ফলে ব্যবসায়ের দিক থেকে উৎসবকে কেন্দ্র করে তারা লাভবান হচ্ছে। প্রতিবারের মতো এবারো কাছের বন্ধু-বান্ধব নিয়ে ক্রিসমাস ডে উদযাপন হবে। বাজার করা হয়ে গেছে। নানা রকম পিঠার আয়োজন থাকবে। অবশ্য আমরা দেশ থেকে চলে এলেও সংস্কৃতিটা বয়ে বেড়াচ্ছি। আমেরিকায় বড়দিন পালন করলেও বাংলাদেশি বিভিন্ন পিঠা থাকেই। প্রিয়া-ই পিঠাগুলো তৈরি করে। এদিকে প্রিয়া ডায়েস ব্যস্ত পিঠা-পুলি তৈরিতে। বিভিন্ন চ্যানেলে অনুষ্ঠানের আহ্বান থাকলেও সময়ের কারণে যাওয়া হয় না তার। তার মাঝে দুয়েকটি অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন প্রিয়া। ছোটবেলার বড়দিনের স্মৃতি, নিজের পিঠা বানানোর গল্প নানা ব্যস্ততা নিয়ে তিনি জানান, ছোটবেলার বড়দিনটা অন্যরকম ছিল। তখন তো এখনকার মতো দায়িত্ববোধ ছিল না। কখন গিফট পাব এ নিয়ে একটা আগ্রহ থাকত। এখনো গিফট পাই, তবে ছোটবেলার মতো উচ্ছ্বাস নেই। আমি একেবারের এক্সপার্ট কুক নই। এখনো ইউটিউব দেখে দেখেই রান্না করি। বড়দিনের আয়োজনে যতটুকু পারি বাংলাদেশের সংস্কৃতি ধরে রেখে কিছু পিঠা করি। তবে আমি এক্সপার্ট কুক না হলেও ভালো কুক। আমার রান্না খুব টেস্ট হয়। কর্মব্যস্ততার ফাঁকে এ একটা দিন পরিবারের সঙ্গে কাটানোর আনন্দ করার সময় পাই। তার মধ্যেও নানা টিভি চ্যানেলের অনুরোধ আসে। তাদের সবটায় সময় দিতে না পারলেও যতটুকু পারি দেই।

বর্তমানে টনি ডায়েস ও প্রিয়া ডায়েস অভিনয় থেকে খানিকটা দূরে। তবে ভালো কোনো গল্পে কাজ করার জন্য দুজনই আগ্রহী। কিন্তু টনি ডায়েস অভিনয়ের পাশাপাশি পরিচালনার দিকে একটু বেশি মনোযোগী। ২০০৫ সালে বাংলাদেশে থাকা অবস্থাতেই কয়েকটি টেলিফিল্ম, নাটক নির্মাণ করেছিলেন। আমেরিকাতে গিয়েও এখন পর্যন্ত দুটো ভিডিওগ্রাফি নির্মাণ করেছেন টনি ডায়েস। সম্প্রতি রবীন্দ্রনাথে ক্যামেলিয়া কবিতা অবলম্বনে একটি ভিডিওগ্রাফি নির্মাণ করে নিজের ইউটিউবে প্রকাশ করেছেন। পরিচালনার বিষয়ে কি ভাবছেন? জানতে চাইলে টনি ডায়েস জানান, যখন কোথাও ঘুরতে বের হই, সুন্দর সুন্দর লোকেশন দেখে ফ্রেম ভাবতে থাকি। কিন্তু সময়ের কারণে ধারাবাহিকভাবে কাজ করা হয়ে উঠছে না। এর ফাঁকেই দুটো প্রডাকশন নির্মাণ করেছি। তবে চেষ্টা করছি ধারাবাহিকভাবে কাজ শুরু করব।

নাগরিক নাট্য সম্প্রদায়ের হাত ধরে অভিনয় যাত্রা শুরু হয় টনি ডায়েসের। তবে ১৯৯৪ সালে টেলিভিশন নাটকে অভিনয় শুরু করে এখন পর্যন্ত চার শতাধিকেরও বেশি নাটক, টেলিফিল্মে অভিনয় করেছেন টনি ডায়েস। তার মাঝে সুদূর আমেরিকায় গিয়ে অনুভব করেন মঞ্চের অভিনয়, থিয়েটারের বন্ধুদের। আশা করেন সময়-সুযোগ পেলে আবারো ফিরবেন মঞ্চে।
আগামী বছরের জানুয়ারি কিংবা ফেব্রুয়ারিতেই দেশে আসবেন টনি ডায়েস। তবে কয়েক সপ্তাহের জন্য। দূর দেশে থাকলেও দেশের বন্ধুদের অনুভব করেন রোজ। তাই কর্মব্যস্ততার মধ্যেও ছুটে আসবেন টনি। দূর প্রবাসে কর্মের তাগিদে থাকা হলেও টনি ডায়েস ও প্রিয়া ডায়েসের মন সব সময় দেশের কথা, শিল্পকলার কথা ভাবে।