সংগ্রাম সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলা

আগের সংবাদ

খালেদার সঙ্গে দেখা হলো না স্বজনদের

পরের সংবাদ

সুখবর মুহূর্তে বিষাদ

নবজাতককে দেখা হলো না বাবা-নানার

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১৪, ২০১৯ , ৪:৩৮ অপরাহ্ণ আপডেট: ডিসেম্বর ১৪, ২০১৯ , ৫:২১ অপরাহ্ণ

হাসপাতালে নবজাতককে দেখতে যাওয়ার পথেই প্রাণ হারিয়েছেন বাবা আর নানা। সন্তান ভূমিষ্ট হওয়ার সুখবর পরিণত হয়েছে বিষাদে। হাসপাতাল আর বাড়ি জুড়ে এখন শুধুই কান্নার রোল।

ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার (১৪ ডিসেম্বর) সকাল আটটার দিকে পাবনায় টেবুনিয়া-চাটমোহর সড়কের আটঘরিয়ার জালালের ঢালু নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- চাটমোহর উপজেলার মুলগ্রাম ইউনিয়নের খতবাড়ি পশ্চিমপাড়া গ্রামের মৃত চাঁদ আলী সরদারের ছেলে মাহাতাব উদ্দিন সরদার (৭০) এবং তার জামাই একই গ্রামের গোলাপ হোসেনের ছেলে আবুল বাশার (৪৫)।

শনিবার পাবনা শহরের বেসরকারি একটি হাসপাতালে মাহাতাব উদ্দিনের মেয়ে রোকসানা সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে একটি ছেলে সন্তানের জন্ম দেন। সুখবর পেয়ে নবজাতককে দেখতে নানা মাহাতাব উদ্দিন ও শিশুটির বাবা বাশারসহ কয়েকজন ব্যাটারিচালিত অটোরিকশায় করে শহরের দিকে রওনা দেন।

পথিমধ্যে জালালের ঢালে পৌঁছলে বিপরীতদিক থেকে আসা চালবোঝাই শ্যালোইঞ্জিনচালিত ট্রলির সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। এতে মারাত্মকভাবে আহত হন কয়েকজন। এর মধ্যে চারজনকে উদ্ধার করে প্রথমে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক মাহাতাব উদ্দিনকে মৃত ঘোষণা করেন। অন্যদিকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বাশারকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথিমধ্যেই মারা যান।

আহত দুজন হলেন চাটমোহর উপজেলার সুইগ্রামের কুতুব উদ্দিন (৪৫) ও খতবাড়ি গ্রামের মুছাদ আলী (৪০)। তাদের পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আটঘরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রকিবুল ইসলাম জানান, দুর্ঘটনার পর আহতদের উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে পাঠিয়েছিলাম। পরে দু’জন মারা যাওয়ার কথা জানতে পেরেছি।

এমএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়