রাণীনগরে আমনধান সংগ্রহে কৃষক ছাড়াই লটারি

আগের সংবাদ

বুধবার সন্ধ্যায় দেশে ফিরছেন আরচাররা

পরের সংবাদ

মূলপর্বে এলিনা-উর্মি

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: ডিসেম্বর ১০, ২০১৯ , ১০:৫৭ অপরাহ্ণ

জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজনের মধ্যে দিয়ে গতকাল থেকে শুরু হয়েছে ‘ইউনেক্স-সানরাইজ বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল চ্যালেঞ্জ ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম সংলগ্ন শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ ইনডোর স্টেডিয়ামে ৬ দিনব্যাপী এ টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল। তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর কথা শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করছি।

আমাদের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসের কথা বিশ্বজুড়ে সম্মানিত। বিজয়ের এই মাসে ব্যাডমিন্টনের এত বড় আয়োজন দেশের সম্মান আরো বাড়িয়ে দিয়েছে। বিজয়ের মাসে ১৯টি দেশের অংশগ্রহণে এ আসরের উদ্বোধন করতে পেরে আমি গর্বিত। এ ছাড়া বিজয়ের মাসে ১৩তম এসএ গেমস নেপালে যারা দেশের জন্য পদক জিতে সম্মান বয়ে এনেছে তাদের বিশেষ আয়োজনে সংবর্ধনা দেয়া হবে।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সেভাবেই নির্দেশনা দিয়েছেন। অনুষ্ঠানে সদ্যসমাপ্ত ১৩তম এসএ গেমসে ব্যাডমিন্টনের মিশ্র দ্বৈতে ব্রোঞ্জজয়ী মোহাম্মদ সালমান খান ও উর্মি আক্তারকে ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ফুলের শুভেচ্ছা জানিয়ে আর্থিক পুরস্কার হিসেবে প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে প্রদান করেন।
গতকাল বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম সংলগ্ন শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ ইনডোর স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ‘ইউনেক্স-সানরাইজ বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল চ্যালেঞ্জ ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট’

স্বাগতিক বাংলাদেশের পুরুষদের সফলতা না থাকলেও মহিলারা ছিল সফল। বাছাই পর্বে দুই সফল হওয়া মহিলারা হলেন এলিনা সুলতানা আর উর্মি আক্তার। তবে বিকেলে মূল পর্বের পুরুষ বিভাগের লড়াইয়ে বাংলাদেশের পক্ষে জয় তুলেছেন গৌরব সিংহ। তিনি মালদ্বীপের হুসাইন জায়ানকে ২০-২২, ২১-১৩ ও ২১-১১ সেটে হারিয়ে মূল পর্বের দ্বিতীয় রাউন্ডে উত্তীর্ণ হয়েছেন। যদিও প্রথম সেটে হারার পরও গৌরব সিংহ শেষ দুই সেটে দাপটের সঙ্গে জয় তুলে নিয়েছেন।

মঙ্গলবার সকালে শুরু হওয়া বাছাই পর্বের ১৪টি ম্যাচে স্বাগতিক বাংলাদেশ, ভারত, মালদ্বীপ, থাইল্যান্ড এর পুরুষ-মহিলারা অংশ নেয়। ৭টি পুরুষ ও ৭টি মহিলা বিভাগের বাছাই পর্বে বাংলাদেশের পুরুষ ৫টি ম্যাচে অংশ নেয়, তাতে পুরুষরা কোন জয় পায়নি। কিন্তু মহিলারা ৭টি ম্যাচের মধ্যে ২টি ম্যাচে জয় তুলে মুল পর্বের টিকিট হাতে নিয়ে নেয়। আজ মুল পর্বে অংশ নেবে এলিনা আর উর্মি। এলিনা ২১-৭ ও ২১-৩ সেটে মালদ্বীপের রাসেদ মাশাকে হারিয়েছে। তবে বাংলাদেশের পক্ষে মুল পর্বে আসা উর্মি আক্তার ওয়াক ওভার পেয়ে যান থাইল্যান্ডের এটিটায়ে প্রোভানন খেলতে না আসায়। এখানে উল্লেখ্য উর্মি আক্তার নেপালে অনুষ্ঠিত ১৩তম এস এ গেমসে মিক্সড ডাবলসে মো: সালমান খানকে সঙ্গে নিয়ে ব্রোঞ্জ পদক জয় করেছিলেন।

মঙ্গলবার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি বাংলাদেশ ব্যাডমিন্টন ফেডারেশনের সভাপতি ও তথ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব আবদুল মালেক বলেন, বিজয়ের এই মাসে মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণ করছি। মুক্তিযুদ্ধের অবদানেই আজ আমরা এ আসর আয়োজন করতে পেরেছি। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে ১৯৭১ সালে স্বাধীনতার ঘোষণা না দিলে আজ আমরা স্বাধীন বাংলাদেশ পেতাম না। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর দেখানো পথেই আমরা এগিয়ে চলছি। সে পথেই আজ আমরা এ আন্তর্জাতিক আসর আয়োজন করতে পেরেছি।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন ব্যাডমিন্টন ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আমির হোসেন বাহার। তিনি বলেন ১৯টি দেশের অংশগ্রহণে এ ধরনের আয়োজনকে সফল করতে আপ্রাণ চেষ্টা করব, যা বিশ^ দরবারে বাংলাদেশ ব্যাডমিন্টন ফেডারেশনের নাম স্মরণীয় হয়ে থাকবে। এ ছাড়া টাইটেল স্পন্সর কোম্পানির পক্ষে বেক্সিকো কমিউনিকেশন্স আকাশ ডিটিএস-এর হেড অব হিউম্যান রিসোর্স মেজর
অব. রুহুল আমিন, ফেডারেশনের সহসভাপতি ও টুর্নামেন্ট কমিটির সেক্রেটারি জহিরুল ইসলাম স্বপন ও ফেডারেশনের সহসভাপতি আলমগীর হোসাইন হোসেন বক্তব্য রাখেন।

জাঁকজমক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের শুরুতেই ছিল লেজার শো। ১৯টি দেশের পতাকা হাতে র‌্যাম্প শো প্রদর্শন করা হয়। তবে অনুষ্ঠানের মূল আকর্ষণ ছিল ডিজিটাল স্ক্রিনে বাংলাদেশের প্রধান প্রধান পর্যটন এলাকার স্থির চিত্রের সঙ্গে পল্লী বাংলার গান। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের শেষ দিকে নাচের সঙ্গে সঙ্গে সাইন্ড সিস্টেমে ভেসে আসে ‘এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম, জয় বাংলা’, নাচের শেষ মুহূর্তে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ সন্তান জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর ছবি তুলে ধরার মধ্যে দিয়ে শেষ হয় উদ্বোধনী অনুষ্ঠান।

উল্লেখ্য, টুর্নামেন্টে ১৯টি দেশের ১৬৮ জন খেলোয়াড় অংশ নিচ্ছেন। এর মধ্যে ১১২ জন পুরুষ ও ৫৬ জন মহিলা খেলোয়াড় রয়েছেন। অংশগ্রহণকারী দলগুলো হচ্ছে অষ্ট্রেলিয়া, কানাডা, চীন, মিসর, ভারত, জাপান, মালদ্বীপ, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, উজবেকিস্তান, ইন্দোনেশিয়া, মরিশাস, আয়ারল্যান্ড, ভিয়েতনাম, ইরান, ওয়েলস ও স্বাগতিক বাংলাদেশ।