মুসলিম লীগের মতো পরিণতি হবে বিএনপির

আগের সংবাদ

আর্চারিতে স্বর্ণ পদক জিতেছেন সুমা

পরের সংবাদ

ছয় ঘণ্টা পর বেঁচে উঠলেন নারী

কাগজ ডেস্ক

প্রকাশিত হয়েছে: ডিসেম্বর ৯, ২০১৯ , ১০:০৭ পূর্বাহ্ণ

হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া ৬ ঘণ্টা বন্ধ থাকার পরও বেঁচে উঠেছেন এক নারী। পর্বতে আরোহণ করতে গিয়ে তুষার ঝড়ের কবলে পড়ে হাইপোথারমিয়ায় আক্রান্ত হয়ে পড়েছিলেন ওই নারী। আশপাশে জরুরি স্বাস্থ্যসেবা পাওয়ার মতো ব্যবস্থাও ছিল না। এমন অবস্থায় এতক্ষণ হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে নিথর দেহ পড়ে থাকা ওই নারীর জীবিত হওয়ার ঘটনা অবিশ্বাস্য!

ঘটনাটি ঘটেছে স্পেনে। ৩৪ বছর বয়সী ওই নারীর নাম অড্রে শোম্যান। চিকিৎসকরা এই ঘটনাকে ‘ব্যতিক্রম’ বলে আখ্যা দিয়েছেন। গত নভেম্বরে স্পেনের কাতালোনিয়া পিরিনীয় পর্বতমালায় স্বামী রোহান শোম্যানসহ আরোহণে গিয়েছিলেন তিনি। সেখানে গিয়ে তুষার ঝড়ে পড়েন তারা। ফলে হাইপোথারমিয়ায় আক্রান্ত হন অড্রে। এক সময় অচেতন হয়ে পড়েন তিনি।

আশপাশে জরুরি স্বাস্থ্যসেবা পাওয়ার উপায় ছিল না। আবার ঝড়ও থামছিল না। রোহান শোম্যান ধরে নিয়েছিলেন, অড্রে মারা গেছেন। গত বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলনে রোহান জানান, তিনি অড্রের হৃদস্পন্দন অনুভব করার চেষ্টা করেন। সে নিঃশ^াস বা হৃদস্পন্দনও বোঝা যাচ্ছিল না।

হাইপোথারমিয়া হলে মানুষের শরীরের স্বাভাবিক তাপমাত্রা ৯৮ দশমিক ৬ ডিগ্রি ফারেনহাইট থেকে নেমে যেতে থাকে। এটাই হয়েছিল অড্রের ক্ষেত্রে। তার শরীরের তাপমাত্রা তখন ১৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমে যায়। এ অবস্থায় ২ ঘণ্টা কেটে যাওয়ার পর সেখানে পৌঁছে জরুরি সেবাদানকারী দল। এই নিরাশার মধ্যে অড্রেকে বার্সেলোনার ভাল ডি হেব্রন হাসপাতালে নেয়া হয়। হাসপাতালের চিকিৎসক এদুয়ার্দ আরগুদো বলেন, একজন মৃত মানুষের মতোই লাগছিল তাকে।