একযুগ পর লাভের মুখে মধ্যপাড়া পাথর খনি

আগের সংবাদ

ধলেশ্বরী-শীতলক্ষ্যার মোহনায় দুই লঞ্চের সংঘর্ষ, নিহত ১

পরের সংবাদ

বরিশালে একই পরিবারের তিনজনের মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৭, ২০১৯ , ৯:৩৩ পূর্বাহ্ণ আপডেট: ডিসেম্বর ৭, ২০১৯ , ৫:৫৫ অপরাহ্ণ

বানারীপাড়া উপজেলার সলিয়াবাপুর ইউনিয়নের সলিয়াবাকপুর গ্রামের হাওলাদার বাড়িতে একই রাতে ৩ জনকে হত্যা করা হয়েছে। শনিবার (৭ ডিসেম্বর) ভোরে ওই বাড়ির কুয়েত প্রবাসী হাফেজ আব্দুর রবের বাসা থেকে তার বৃদ্ধা মা মরিয়ম বেগম (৭৫), স্বরূপকাঠি থেকে বেড়াতে আসা ভগ্নিপতি সাবেক শিক্ষক সফিকুল আলম (৬৫) ও বাড়ির পুকুর থেকে খালাতো ভাই ইউসুফের (২২) হাত-পা বাঁধা লাশ উদ্ধার করা হয়।

হত্যাকাণ্ডের রাতে ওই ঘরে সলিয়াবাপুর গ্রামের মৃত নাজির আহম্মেদ হাওলাদারের স্ত্রী মরিয়ম বেগম, তার কুয়েত প্রবাসী ছেলে হাফেজ রবের স্ত্রী মিশরাত জাহান মিশু, দুই শিশু নাতনি, ভায়রা ছেলে ইউসুফ হোসেন, অপর ছেলে হারুনের মেয়ে চাখার সরকারি ফজলুল হক কলেজের এইচএসসি প্রথমবর্ষের ছাত্রী আছিয়া আক্তার ও বেড়াতে আসা মেয়ে জামাতা সফিকুল আলম অবস্থান করছিলেন। এর মধ্য থেকে ৩ জনকে ভোরে মৃত্যু অবস্থায় পাওয়া যায়। তবে ঘরের সবদিকের দরজা-জানালা বন্ধ ছিলো। তবে চিলে কোঠার দরজা খোলা ছিল।

প্রবাসীর স্ত্রী মিশু জানান, তার কক্ষের স্টিলের আলমিরার ড্রয়ার থেকে বেশ কিছু স্বর্ণাঙ্কার ও তিনটি মোবাইল ফোন নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ওই তিনটি মোবাইলের মধ্যে একটি তার ও অপর দুটি হত্যাকাণ্ডের শিকার হওয়া শাশুড়ি ও ননদ জামাতার। স্বর্ণালঙ্কার ও মোবাইল ফোন নিয়ে গিয়ে হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি ডাকাতি থেকে হয়েছে এটা প্রমাণের চেষ্টা করা হতে পারে বলে মনে করছেন স্থানীয়রা।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়