প্রতিবন্ধীরা সমাজ ও পরিবারের বোঝা নয়

আগের সংবাদ

বাংলাদেশের স্বর্ণময় প্রথম তিনদিন

পরের সংবাদ

জলবায়ু অভিঘাতে বিশ্বে ২ সেকেন্ডে গৃহহীন ১ জন!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত হয়েছে: ডিসেম্বর ৩, ২০১৯ , ৬:৩৯ অপরাহ্ণ

বন্যা ও দাবানলের মতো প্রাকৃতিক দুর্যোগে প্রতিবছর প্রায় ২ কোটি মানুষ তাদের নিজেদের ঘরবাড়ি ছেড়ে অন্যত্র আশ্রয় নিতে বাধ্য হয় বলে জানায় দারিদ্রতা বিমোচন বিষয়ক আন্তর্জাতিক এনজিও সংস্থা অক্সফাম। যে ক্ষতি থেকে কেউ আত্নরক্ষা করতে না পারলেও সবচেয়ে ঝুঁকিতে রয়েছে দরিদ্র দেশগুলো।

মাদ্রিতে চলমান জলবায়ু সম্মেলন উপলক্ষে গত সোমবার প্রকাশিত এক রিপোর্টে অক্সফাম জানায় গত দশকে প্রবি বছর ২ কোটি মানুষ অর্থাৎ প্রতি ২ সেকেন্ডে একজন মানুষ গৃহহীন হয়। সরকারী এবং আন্তর্জাতিক ও গণমাধ্যম থেকে প্রাপ্ত তথ্যমতে ২০০৮ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত জনগণ প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে দেশের অভ্যন্তরেই নিরাপদ আশ্রয়ে বাড়িছেড়ে চলে যায়।

এ রিপোর্ট অনুযায়ি বর্তমানে মানুষ পূর্বের ভূমিকম্প ও অগ্নেগিরির লাভার কারণে বাড়ি ছাড়ার তুলনায় ৭ গুন বেশি ঘর ছাড়ছে শুধু ঘূর্ণিঝড়, বন্যা ও বনে আগুন লাগার ফলে। আর সংঘাতের ফলে ৩ গুণ মানুষ গৃহহারা হচ্ছে।

জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে উন্নত দেশের মানুষের তুলনায় ভারত,নাইজেরিয়া ভলিবিয়ার মতো মধ্য ও উন্নয়নশীল দেশের লোকেরা ব্যাপক হারে বাস্তুচ্যুত হচ্ছে। গৃহহারা শীর্ষ ১০ টি দেশের মধ্যে ৭টি দেশই ছোট উপকূলীয় উন্নয়নশীল দেশ।

এশিয় মহাদেশ পরিবেশ বিপর্যয়ের সবচেয়ে বড় শিকার যেখানে ৮০% গৃহহীন বাস্তুচ্যুত মানুষের বসবাস।
উল্লেখ্য, বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চলও প্রতিনিয়ত প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের হুমকি মোকাবেরা করছে।

নকি/