ইডেনের মাঠে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

আগের সংবাদ

শিগগিরই স্থানীয় সরকার বিভা‌গ ডি‌জিটালাইজ হ‌বে

পরের সংবাদ

চিলমারী বন্দর হবে আন্তর্জাতিক নৌ-রুট

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি

প্রকাশিত হয়েছে: নভেম্বর ২২, ২০১৯ , ৭:৩৩ অপরাহ্ণ

কুড়িগ্রামের চিলমারী বন্দরকে একটি আন্তর্জাতিক নৌ-রুট হিসেবে চালু করা হবে বলে জানিয়েছেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী। শুক্রবার (২২ নভেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে চিলমারী নৌবন্দর পরিদর্শনকালে এ কথা জানান নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী।

এ সময় প্রতিমন্ত্রী বলেন, চিলমারী নৌ-রুটটি একটি আন্তর্জাতিক রুট হিসেবে চালু হবে। ভারতের সঙ্গে আমাদের প্রটোকল চুক্তি আছে। ভুটানের সঙ্গেও একটি প্রটোকলের আলোচনা চলছে। এ জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী চিলমারী নদী বন্দরে একটি কাস্টমস অফিসের জন্য এনবিআরকে নির্দেশনা দিয়েছেন। আমরা আশা করছি এ রুটটি চালু হয়ে গেলে এই এলাকার অর্থনীতিতে ব্যাপক ইতিবাচক পরিবর্তন ঘটবে।

‘চিলমারী নদীবন্দর একনেকে অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে। আশা করছি আগামী ১৫ থেকে ২০ দিনের মধ্যে প্রায় ৩শ’ কোটি টাকার অনুমোদন হয়ে গেলেই এখানে কার্যক্রম শুরু হয়ে যাবে। চিলমারী নদীবন্দরে মালামাল ওঠানোর জন্য একটি বন্দর ও যাত্রী ওঠা-নামার জন্য আরেকটি আলাদা বন্দর করা হবে।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন প্রাথমিকও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো: জাকির হোসেন,  নৌ ও পরিবহন মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব ভোলানাথ দে, জেলা প্রশাসক সুলতানা পারভীন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও সাবেক এমপি জাফর আলী, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান প্রমুখ।

এর আগে নৌ ও পরিবহন প্রতিমন্ত্রী সকাল ৯টায় হেলিকেপ্টারযোগে চিলমারী থানাহাট হ্যালিপ্যাডে নামেন। এরপর তিনি টেরেডেস হোমস ফাউন্ডেশনে জেলার দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময় করেন। পরে তিনি চিলমারী নৌ-বন্দর পরিদর্শনে যান।

উল্লেখ্য, শিল্পী আব্বাস উদ্দিনের ‘ওকি গাড়িয়াল ভাই, হাঁকাও গাড়ি তুই চিলমারীর বন্দরে’ গানের মধ্য দিয়ে চিলমারী বন্দরটি আর্ন্তজাতিকভাবে ব্যাপক পরিচিতি লাভ করে। কালের বির্বতনে ব্রহ্মপুত্র নদের নাব্যতা হারিয়ে বন্দরটি অকার্যকর হয়ে পড়ে।