গোলাপি সাজে সেজেছে কলকাতা

আগের সংবাদ

বাংলাদেশ-ভারত দ্বাদশ

পরের সংবাদ

টেনিসে গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার

খেলা প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: নভেম্বর ২০, ২০১৯ , ১০:৪৯ অপরাহ্ণ

তরুণ প্রজন্মের শারীরিক ও মানসিক বিকাশে খেলাধুুলার ওপর গুরুত্বারোপ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, তার সরকার ক্রিকেট এবং ফুটবলের পাশাপাশি টেনিসসহ অন্যান্য খেলার প্রসারেও সমান গুরুত্ব দিচ্ছে।
তিনি একইসঙ্গে ক্রিকেট এবং ফুটবলের পাশাপাশি টেনিস অনুশীলনের জন্যও দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘ক্রিকেট, ফুটবল নিয়েই আমরা সবসময় মেতে থাকি। তবে, টেনিসও অনেক গুরুত্বপূর্ণ। আর খেলাধুলার প্রতি আমরা সবসময়ই গুরুত্ব দিয়ে থাকি। কারণ, খেলাধুলা আমাদের ছেলেমেয়েদের মানসিক শক্তি জোগায়।’
মঙ্গলবার (২০নভেম্বর) গণভবনে ‘শেখ রাসেল ইন্টারন্যাশনাল ক্লাব কাপ টেনিস টুর্নামেন্ট-২০১৯’ এ অংশগ্রহণকারী দেশসমূহের রাষ্ট্রদূত এবং খেলোয়াড়দের সৌজন্য সাক্ষাৎ প্রদানকালে প্রধানমন্ত্রী একথা জানান।
সরকারপ্রধান বলেন, আমরা সাধারণত ক্রিকেট এবং ফুটবল খেলা নিয়ে ব্যস্ত। টেনিসও কিন্তু ভালো খেলা। টেনিস খেলা জনপ্রিয় এবং প্রসার করতে স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে টেনিস কোর্ট স্থাপনে আমরা সহযোগিতা করব। যেন তরুণরা এ খেলার প্রতি আগ্রহী হয়।
এর আগে ১৩ নভেম্বর গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শেখ রাসেল ইন্টারন্যাশনাল ক্লাব কাপ টেনিস টুর্নামেন্ট-২০১৯ এর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।
এবারের টুর্নামেন্টে স্বাগতিক বাংলাদেশসহ ১৮টি দেশের ২১টি ক্লাব অংশ নিচ্ছে। বাকি ১৭টি দেশ হলো যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া, ইতালি, ভারত, নেপাল, ভুটান, শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তান, ইরাক, দক্ষিণ কোরিয়া, তিউনিশিয়া, মঙ্গোলিয়া, তুর্কিমেনিস্তান, তাজিকিস্তান, ভিয়েতনাম ও ক্যামেরুন।
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং শেখ রাসেলের ৫৪তম জন্মদিন উপলক্ষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ এবং যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় খুলনা জেলা প্রশাসন শেখ রাসেল ইন্টারন্যাশনাল ক্লাব কাপ টেনিস টুর্নামেন্ট-২০১৯ এর আয়োজন করেছে।
তরুণ ও শিশুদের খেলাধুলার প্রতি আগ্রহী করতে সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগের কথা তুলে ধরে অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী বলেন, শিশু ও তরুণ প্রজন্মকে খেলাধুলার প্রতি আগ্রহী করতে সরকার অবকাঠামো উন্নয়নের ওপর গুরুত্বারোপ করেছে।
তিনি বলেন, আমরা সব সময় খেলাধুলাকে গুরুত্ব দিচ্ছি যা শিশু ও তরুণদের শারীরিক ও মানসিক বিকাশ ঘটাবে। তরুণ প্রজন্ম নিজেদের খেলাধুলার সঙ্গে যত বেশি সম্পৃক্ত করবে তাদের তত মানসিক বিকাশ হবে, মন উদার হবে এবং শারীরিকভাবে শক্তিশালী হবে।
এর পরিপ্রেক্ষিতে ফুটবল ও ক্রিকেটের পাশাপাশি টেনিস খেলাকে জনপ্রিয় করতে এবং এর প্রসারে এগিয়ে আসতে জনগণের প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।
টেনিস খেলার প্রসারে অবকাঠামো নির্মাণসহ সরকার প্রয়োজনীয় সব ধরনের সহযোগিতা করবে বলে আশ্বাস দেন তিনি।
এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল, সংসদ সদস্য শেখ সালাউদ্দিন জুয়েল, আবদুস সালাম মুর্শেদী প্রমুখ।
ভারতীয় হাইকমিশনার রিভা গাঙ্গুলী দাসসহ টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী দেশসমূহের রাষ্ট্রদূত ও হাইকমিশনাররা এ অনুষ্ঠানে অংশ নেন।

/এসএইচ