ইডেনে থাকছেন ইমরুল!

আগের সংবাদ

লিবিয়ায় বিমান হামলায় বাংলাদেশি নিহত, আহত ১৫

পরের সংবাদ

সিনিয়র জুনিয়র দ্বন্দ্ব, ছুরিকাঘাতে ২ শিক্ষার্থী আহত

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: নভেম্বর ১৮, ২০১৯ , ১০:৫৫ অপরাহ্ণ

রাজধানীর মিরপুর শাহআলীতে সিনিয়র জুনিয়র দ্বন্দ্বে ছুরিকাঘাতে ২ শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। তাদরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে।

এরা হলেন- আমিন বাজার আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজ থেকে ৮ম শ্রেণির ছাত্র আরাফাত হোসেন রিফাত (১৫) ও তেজগাঁও কলেজের ইন্টারমিডিয়েট ১ম বর্ষের ছাত্র মোঃ শাহেদ (১৭)।  সোমবার (১৮ নভেম্বর) রাত ৮টার দিকে এই ছুরিকাঘাতের ঘটনা ঘটে।

রিফাতের নানী সালমা বেগম জানান, রিফাতের বাসা আমিন বাজার। তার বাবার নাম মোঃ ইয়াসিন। মা বিলকিস আক্তার। ২ভাইবোনের মধ্যে বড় সে। রবিবারই সে নানীর বাসা মিরপুর-১ লালকুঠি জব্বার হাউজিং ৩য় কলোনীর ৭২/১৫ নম্বর যায়। সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকেই সে খাবার খেয়ে বাসার বাইরে বের হয়েছিলো।

হাসপাতালে আহত শাহেদ জানায়, তার বাবার নাম মোঃ তোফায়েল হোসেন। থাকে মিরপুর মাজার রোডের জব্বার হাউজিংএ শ্রাবণধারা বিল্ডিং।

আহত শাহেদ ও তাদের বন্ধু নুর হোসেন নাহিদ জানায়, তারা ৪/৫ জন বন্ধু মিলে সন্ধার পরে শাহআলী স্কুলের পিছনে আড্ডা দিচ্ছিলো। তখন তাদেরই আরেক বন্ধু ইমরানের সাথে একই এলাকার রায়হান, সাকিব, হাসান সহ ৮/১০ জন তাদের পাশে এসে অযথা কথা কাটাকাটি শুরু করে।

তারা জানায়, রায়হান সাকিবরা এলাকায় নিজেদেরকে সিনিয়র দাবি করে। তাদেরকে সম্মান দিতে বলে। তবে তাদের দাবি মানেনা ইমরানরা। এজন্যই তাদের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে ধারালো ওই ৮/১০ জন মিলে তাদের উপর আক্রমান করে। এতে শাহেদের একটি আঘাত লাগলে সে দৌড়ে পালিয়ে যেতে পারে। তবে রিফাত ওখানে পড়ে গেলে এলোপাতারি ছুরিকাঘাতে আহত করে তারা।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (ইন্সপেক্টর) বাচ্চু মিয়া জানান, আহত অনস্থায় তাদের ২জনকে প্রথমে উদ্ধার করে প্রথমে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল নিয়ে যাওয়া হয়েছিলো। সেখান থেকে পরে তাদেরকে রাত সাড়ে ৯টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। রিফাতের বুকে, পেটে, পিঠে সহ শরীরে বেশ কয়েকটি ছুরিকাঘাত রয়েছে। আর শাহেদের বাম বগলের পাশে ছুরিকাঘাত রয়েছে।