টাইগাররা কলকাতায় যাচ্ছে মঙ্গলবার

আগের সংবাদ

দেশিদের চেয়ে বিদেশিদের মূল্য বেশি

পরের সংবাদ

হৃদয়ের সেঞ্চুরিতে সিরিজ জিতল যুবারা

খেলা প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: নভেম্বর ১৭, ২০১৯ , ১০:০৩ অপরাহ্ণ

ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার যুবাদের বিপক্ষে দাপটেই সিরিজ জিতল বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। রবিবার (১৭ নভেম্বর) চতুর্থ ম্যাচে তৌহিদ হৃদয়ের দুর্দান্ত সেঞ্চুরির সঙ্গে অধিনায়ক আকবর আলির অপরাজিত ফিফটিতে ভর করে ৫ উইকেটে জিতেছে টাইগার যুবারা। এ দিন চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে নির্ধারিত ৫০ ওভারে শ্রীলঙ্কা ৭ উইকেট খুইয়ে ২৬০ রান করে। এর জবাবে ১৬ বল হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় স্বাগতিকরা। ফলে এক ম্যাচ হাতে রেখে যুব ওয়ানডে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ৩-০ ব্যবধানে জিতল স্বাগতিকরা। আর ব্যাট হাতে দুর্দান্ত খেলে ম্যান অব দা ম্যাচ হয়েছে তৌহিদ হৃদয়। একই মাঠে কাল (মঙ্গলবার) হবে সিরিজের শেষ ম্যাচ।

এ ছাড়া রবিবার ম্যাচে তৌহিদ হৃদয় দেশের হয়ে যুব ওয়ানডেতে সর্বাধিক সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়েছেন। তিনি ৯ চার ও ৩ ছক্কায় ১২০ বলে ১১৫ রানের ইনিংস খেলেন। এটি যুব ওয়ানডেতে হৃদয়ের চতুর্থ সেঞ্চুরি।

এর আগের ম্যাচে অপরাজিত ১২৩ রান করে সেঞ্চুরির রেকর্ডে এনামুল হক বিজয় ও মাহমুদুল হাসান জয়ের পাশে বসেছিলেন হৃদয়। সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে করেছিলেন অপরাজিত ৮২ রান। রবিবার ১১৫ রান তুলে সর্বাধিক সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়েই ক্ষান্ত হলেন হৃদয়।

শ্রীলঙ্কার ২৬০ রানের চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্যে বাংলাদেশ ৩৭ রানে ২ উইকেট হারানোর পর ক্রিজে নামেন হৃদয়। ওপেনার তানজিদ হাসান তামিম বিদায় নেন দলীয় ৬৯ রানে। চতুর্থ উইকেটে শাহাদাত হোসেনের সঙ্গে ৬২ রান যোগ করে শুরুর ধাক্কা কাটায় হৃদয়। আর পঞ্চম উইকেটে আকবরের সঙ্গে গড়েন ১১০ রানের ম্যাচজয়ী জুটি। হৃদয় যখন আউট হন জয়ের জন্য তখন দরকার ছিল ২০ রান। সিরিজে এবারই প্রথম আউট হলেন হৃদয়। অপরাজিত ৬৬ রানের পথে ছক্কা মেরে দলের জয় নিশ্চিত করেন আকবর।

এর আগে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্বান্ত নেয় সফরকারীরা। ব্যাটিংয়ে নেমে ৯ ওভারে ৬৯ রানের উদ্বোধনী জুটিতে দুর্দান্ত শুরু করে লঙ্কানরা। টানা দুই বলে দুই ওপেনারকে তুলে নিয়ে স্বাগতিকদের ম্যাচে ফেরান পেসার তানজিম হাসান সাকিব। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় সফরকারীরা। তবে সবার ছোট ছোট সংগ্রহে ইনিংসে আড়াইশ ছাড়ায় লঙ্কানরা। ৫২ বলে সর্বোচ্চ ৪৩ রানে অপরাজিত থাকেন গামাগে দিনুশা। বল হাতে বাংলাদেশের ৫৪ রানে ৩ উইকেট নেন তানজিম।