এবার কারণ ছাড়াই বাড়ছে চালের দাম

আগের সংবাদ

বিভিন্ন স্থানে পরিবহন ধর্মঘট : যাত্রী দুর্ভোগ

পরের সংবাদ

চট্টগ্রামের আড়তে এসেছে ১৯৮ টন পেঁয়াজ

কাগজ প্রতিবেদক :

প্রকাশিত হয়েছে: নভেম্বর ১৭, ২০১৯ , ১০:৪১ পূর্বাহ্ণ

পেঁয়াজের বাজারে অস্থিরতার মধ্যে গতকাল শনিবার চট্টগ্রামে ১৯৮ টন পেঁয়াজ এসেছে। এর মধ্যে চীন ও মিসর থেকে আনা ১১৪ টন পেঁয়াজ বন্দরে খালাস হয়েছে এবং মিয়ানমার থেকে আসা ৮৪ টন পেঁয়াজ বন্দরনগরীর পাইকারি বাজার খাতুনগঞ্জের বিভিন্ন আড়তে এসেছে।
এদিকে চাহিদার তুলনায় সরবরাহ কম থাকায় আধা পচা পেঁয়াজও বিক্রি হচ্ছে চট্টগ্রামের খুচরা বাজারে। এদিন খাতুনগঞ্জ ও চাক্তাইয়ের পাইকারি বাজারের বিভিন্ন এলাকায় পচা পেঁয়াজের কিছু বস্তা পড়ে থাকতেও দেখা গেছে। চট্টগ্রাম সমুদ্র বন্দরের উদ্ভিদ সংগনিরোধ কর্তৃপক্ষের উপপরিচালক আসাদুজ্জামান বুলবুল গণমাধ্যমকে জানান, চট্টগ্রাম বন্দরে মিসর থেকে আনা ৫৮ টন এবং চীন থেকে আনা ৫৬ টন পেঁয়াজ খালাস হয়েছে।
গত ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে গতকাল শনিবার পর্যন্ত মোট ৬ হাজার ১৪১ টন পেঁয়াজ চট্টগ্রাম বন্দর থেকে ছাড় হয়েছে। এই সময়ের মধ্যে পেঁয়াজ আনতে আমদানি অনুমতিপত্র (আইপি) নেয়া হয়েছে ৭১ হাজার ৮০২ টনের। এর মধ্যে গত বুধবার পর্যন্ত ৬৬ হাজার ১৬২ টনের আইপি নেয়া হয়েছিল। এরপর গত কয়েক দিনে আরো ৫ হাজার ৬৪০ টন পেঁয়াজ আমদানির অনুমতিপত্র খোলা হয়েছে।
এর আগে গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আসে ৫ হাজার ৯৪৭ টন। গত শুক্রবার আরো ৮০ টন পেঁয়াজ ছাড় হয়। খাতুনগঞ্জের হামিদুল্লাহ মার্কেট কাঁচামাল আড়তদার সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. ইদ্রিচ বলেন, আজ (গতকাল) মিয়ানমার থেকে আমদানি করা ছয় ট্রাক পেঁয়াজ (৮৪ টন) খাতুনগঞ্জে এসেছে। তবে পাইকাররা বেশি দামে পেঁয়াজ কিনতে ভয় পাচ্ছে। মিয়ানমার থেকে আরো কিছু পেঁয়াজ কাল-পরশু আসতে পারে। বন্দর থেকে ছাড় হওয়া পেঁয়াজ গত দুই দিনে খাতুনগঞ্জে আসেনি। সেগুলো দেশের অন্য জেলার পাইকাররা কিনে নিয়ে গেছে।