মানসম্মত শিক্ষায় রোল মডেল হবে বাংলাদেশ

আগের সংবাদ

সঞ্চালন ও বিতরণ ব্যবস্থার উন্নয়ন জরুরি

পরের সংবাদ

ইন্টারন্যাশনাল ফ্যাশন উইকেন্ড নিয়ে কোরিওগ্রাফার লিনা খান

প্রকাশিত: নভেম্বর ১৩, ২০১৯ , ৯:৩৯ অপরাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ১৩, ২০১৯ , ৯:৩৯ অপরাহ্ণ

রাজধানীতে অনুষ্ঠিত হলো ইন্টারন্যাশনাল ফ্যাশন উইকেন্ড-২০১৯ (আইএফডব্লিউ)। যমুনা ফিউচার পার্কে চলা এই আয়োজনটির ইভেন্ট পার্টনার ছিল ফাইভআর কমিউনিকেশন।

দেশের শীর্ষস্থানীয় প্রায় ৪০জন র‌্যাম্প মডেল এবং লিনা গ্রুমিং স্টুডিও শিক্ষার্থীরা এতে অংশ নেয়। ফ্যাশন শোটি কোরিওগ্রাফি করে মডেল ও কোরিওগ্রাফার লিনা খান।

গত ৮ নভেম্বর সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত এই র‌্যাম্প শোতে ১৬টি ফ্যাশন কিউ পরিবেশিত হয়। দেশীয় সব ব্র্যান্ড এই ফ্যাশন উইকে অংশ নেয়। এর মধ্যে ইনফিনিটি, মিথ, রিচম্যান, ইরানি বোরকা, ক্লোদিয়ানা, জিনস অ্যান্ড কোং, স্টার বাক্স কফিসহ বেশ কিছু নামি প্রতিষ্ঠান ছিল। পুরস্কার প্রদান, মিউজিক্যাল কনসার্ট ও ড্যান্স শোকেসের ছিল আয়োজনে। দারাজ ছিল অনুষ্ঠানের টাইটেল স্পন্সর। এ ছাড়াও অনুষ্ঠানে বেস্ট কোরিওগ্রাফি অ্যাওয়ার্ড পান লিনা খান।

মডেল ও কোরিওগ্রাফার লিনা খান বলেন, এই ফ্যাশন শোকে যতটুকু উপভোগ্য করা যায় সে চেষ্টাই ছিল আমাদের। আমি আমার পুরো টিমকে এজন্য ধন্যবাদ দেব। কেননা এই আয়োজনে সবাই কম বেশি কষ্ট করেছে। অংশ নেয়া মডেল থেকে শুরু করে হেয়ার, মেকওভারের সঙ্গে জড়িতরাও অনেকে কষ্ট করেছে। এ ছাড়াও আমি বিশেষ ধন্যবাদ দিতে চাই আইএফডব্লিউ টিমকে। সবার সহযোগিতার কারণে ইন্টারন্যাশনাল ফ্যাশন উইকেন্ডের কাজ সফলভাবে শেষ হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, এই ধরনের আয়োজনের দরকার আছে আমাদের দেশে। বড় পরিসরের এই আয়োজনগুলোতে অনেক মডেলরা অংশ নিতে পারে। অনেক ব্র্যান্ড যুক্ত থাকতে পারে। এ ছাড়াও আগামী বছরের জন্য আমরা এখন থেকেই পরিকল্পনা শুরু করেছি। এবার আমরা কম সময়ে যেভাবে করেছি আগামী বছর সেটি হবে না। আগামী বছর পরিকল্পনা করেই করা হবে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়