সাকিবের আবেগঘন স্ট্যাটাস

আগের সংবাদ

ফুরফুরে মেজাজে জেমি ডের শিষ্যরা

পরের সংবাদ

গতিতে হোয়াইটওয়াশ পাকিস্তান

প্রকাশিত হয়েছে: নভেম্বর ৮, ২০১৯ , ১০:০৩ অপরাহ্ণ | আপডেট: নভেম্বর ৮, ২০১৯, ১০:০৯ অপরাহ্ণ

কাগজ প্রতিবেদক

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজে ২-০ তে হোয়াইটওয়াশ হয়েছে পাকিস্তান। সিরিজের প্রথম ম্যাচটি বৃষ্টিতে ভেসে যায়। শুক্রবার টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে অজি পেসারদের গতির তোপে পড়ে মিজবাহ-উল হকের শিষ্যরা। কোনোমতে পুরো ২০ ওভার ব্যাটিং করে ৮ উইকেট হারিয়ে ১০৮ রান তুলতে সমর্থ হন তারা। পাকিস্তানের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৫ রান করেন ইফতেখার আহমেদ। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৪ রান করেন ওপেনার ইমাম-উল হক। বাকি ৮ ব্যাটসম্যানের কেউই আর ২ অঙ্কের ঘরই ছুঁতে পারেননি। বোলিংয়ে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ৩টি উইকেট তুলে নেন কেন রিচার্ডসন। আর দুটি করে উইকেট তুলে নেন মিচেল স্টার্ক ও সিন অ্যাবট।
এই সহজ লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে কোনো উইকেট না হারিয়ে মাত্র ১১ ওভার ৫ বলে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় অজিরা। হাফসেঞ্চুরি তুলে নেন অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। ৩৬ বল খেলে ৫২ রান করেন তিনি। ৩৫ বল থেকে ৪৮ রান করেন ডেভিড ওয়ার্নার। টি-টোয়েন্টিতে এ নিয়ে মাত্র দুবার ১০ উইকেটের জয় পেয়েছে অজিরা। সর্বশেষ ২০০৭ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথমবারের মতো ১০ উইকেটে জিতেছিল তারা।
এদিকে এই জয়ের মাধ্যমে অনন্য এক রেকর্ড গড়েছে অস্ট্রেলিয়া। এ বছর টি-টোয়েন্টিতে ৭টি ম্যাচ খেলেছে জাস্টিন ল্যাঙ্গারের শিষ্যরা। আর ৭টি ম্যাচের সবগুলোতেই জিতেছে তারা। সর্বশেষ ২০১৮ সালের নভেম্বর মাসে ভারতের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে হারের মুখ দেখেছিল তারা। অন্যদিকে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে র‌্যাঙ্কিংয়ে এক নম্বরে থাকা পাকিস্তান এ বছর দশটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছে। কিন্তু জয় পেয়েছে মাত্র একটি ম্যাচে। হেরেছে ৮টি ম্যাচ। আর একটি ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়েছে। কিন্তু এত বাজে পারফরমেন্সের পরও র‌্যাঙ্কিংয়ের এক নম্বর জায়গাটি ধরে রাখতে সমর্থ হয়েছে পাকিস্তান। তবে এ জন্য তাদের ধন্যবাদ দিতে হয় বৃষ্টিকে। বর্তমানে টি-টোয়েন্টি র‌্যাঙ্কিংয়ের ২ নম্বরে রয়েছে অস্ট্রেলিয়া। পাকিস্তানকে তিন ম্যাচ সিরিজে হোয়াইটওয়াশ করতে পারলেই এক নম্বরে উঠে আসত তারা। কিন্তু সিরিজের প্রথম ম্যাচটি বৃষ্টিতে ভেস্তে যাওয়ায় সেটি আর সম্ভব হয়নি। এখন র‌্যাঙ্কিংয়ে দুই নম্বরে থেকেই বছর শেষ করতে হচ্ছে তাদের। তবে হারলেও র‌্যাঙ্কিংয়ের এক নম্বর জায়গাটি ধরে রাখার মাধ্যমে আরেকটি রেকর্ড গড়েছে পাকিস্তান। টি-টোয়েন্টির ইতিহাসে প্রথম দল হিসেবে এক টানা ২২ মাস সেটি ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছে তারা।

  • আরও পড়ুন
  • লেখকের অন্যান্য লেখা