জাবিতে ছাত্রলীগের হামলায় সিপিবির নিন্দা

আগের সংবাদ

মুক্তিযোদ্ধা ও রাজনীতিবিদ সাদেক হোসেন খোকার প্রয়াণ

পরের সংবাদ

দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর রাঙ্গাবলিতে যাচ্ছে বিদ্যুৎ

প্রকাশিত হয়েছে: নভেম্বর ৫, ২০১৯ , ৯:২২ অপরাহ্ণ | আপডেট: নভেম্বর ৫, ২০১৯, ৯:২২ অপরাহ্ণ

কাগজ প্রতিবেদক

দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর এবার বিদ্যুতের আলোয় আলোকিত হতে যাচ্ছে পটুয়াখালী জেলার রাঙ্গাবলি উপজেলা। রাঙ্গাবালী উপজেলাটির ১০৭ গ্রামের প্রায় দুই লাখ মানুষ দেখবে আলোর মুখ। উপজেলা হওয়ার পরও এখানকার দুই লাখ মানুষকে আট বছর কাটাতে হয়েছে বিদ্যুত বিহীন। জাতীয় গ্রিডের বিদ্যুতের সাথে রাঙ্গাবালী উপজেলাকে যুক্ত করার পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। এ মাসের মধ্যেই শুরু হবে বিদ্যুতের সংযোক ও খুঁটি নির্মান কাজ। সাংবাদিকদের এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো:সেলিম মিয়া।

পল্লী বিদ্যুতায়ন উপলক্ষে মঙ্গলবার (৫ নভেম্বর) দুপুরে রাঙ্গাবালী উপজেলা পরিশদে আলোচনা সভা ও মত বিনিময় সভা করা হয়। সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্হিত ছিলেন পটুয়াখালী -৪ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যক্ষ মহিব্বুর রহমান মহিব। এ সময় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো:সেলিম মিয়া,পটুয়াখালী পল্লী বিদ্যুত সমিতির জেনারেল ম্যানেজার মনোহর কুমার, রাঙ্গাবালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো:মাশফাকুর রহমান।

এ সময় অন্যান্য দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রাঙ্গাবালী প্রেসক্লাবের সভাপতি মো:জোবায়ের হোসেন ও সাধারন সম্পাদক কামরুল হাসান রুবেল। জানা গেছে পটুয়াখালী জেলার সাগর বেস্টিত -এই রাঙ্গাবালী একটি অবহেলীত উপজেলা। উপজেলার বয়স আট বছর পেরিয়ে গেলেও দীর্ঘ এই সময়ে বিদ্যুৎ ও হাসপাতাল নির্মিত হয়নি। যার কারনে এখানকার লোকজন সারা দেশের তুলনায় অনেক পিছিয়ে ছিল।

গত ৩১ডিসেম্বর জাতীয় নির্বাচনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পরে অধ্যক্ষ মহিব্বুর রহমান মহিব ও রাঙ্গাবালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো:মাশফাকুর রহমান বিদ্যুৎ ও হাসপাতাল নির্মানের জন্য উদ্দ্যোগ গ্রহন করেন। এরপর দীর্ঘ সময় চিঠি চালাচালি ও গনমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর বিষয়টি নজরে নেয় কতৃপক্ষ।

ইতি মধ্যে রাঙ্গাবালীতে পল্লী বিদ্যুতের একটি সাবস্টেশন করার লক্ষ্যে যায়গা পরিদর্শন করেছেন বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের একটি টিম। এ মাসের মধ্যেই বিদ্যুতের পিলার ও সংযোগের কার্যক্রম শুরু হবে। ভোলা থেকে পিলার ও তারের মাধ্যমে রাঙ্গাবালী সাবস্টেশনে সংযোগ দেয়া হবে। রাঙ্গাবালী সাবস্টেশন থেকে উপজেলার চারটি ইউনিয়ন অর্থাৎ রাঙ্গাবালী সদর, ছোটবাইশদিয়া, বড়বাইশদিয়া, ওমৌডুবিতে সংযোগ দেয়া হবে।

এ ছাড়া ও বাকি দুটি ইউনিয়নের মধ্যে চর মোন্তাজ ইউনিয়নে চর কাজল-চর বিশ্বাস থেকে সংযোগ দেয়া হবে। আর চলিতাবুনিয়া ইউনিয়নে গলাচীপা উপজেলা থেকে সংযোগ দেয়া হবে।এখন থেকে শুরু করে ২০২০সালের মধ্যে কাজ শেষ হবে বলে জানিয়েছেন পল্লী বিদ্যুৎ কতৃপক্ষ। পটুয়াখালী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জেনারেল ম্যানেজার মনোহর কুমার বিশ্বস জানান, চারিদিকে নদী বেষ্টিত এই উপজেলাকে বিদ্যুতের আলোয়ে আলোকিত করার লক্ষে আমরা কার্যক্রম শুরু করেছি।

ইতোমধ্যে বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের একটি টিম সাবস্টেশনের যায়গা পরিদর্শন করেছেন। রাঙ্গাবালীতে বিদ্যুতের সংযোগ করতে এখোন থেকে শুরু করে ২০২০সাল পর্যন্ত সময় লাগবে। ২০২০সালের মধ্যে রাঙ্গাবালী উপজেলার প্রতিটি ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌছে দিব।

  • আরও পড়ুন
  • লেখকের অন্যান্য লেখা