জীবননগরে মাদক ব্যাবসায়ী গ্রেপ্তার

আগের সংবাদ

দিনের বেলায় শিক্ষকের বাসায় চোরের হানা

পরের সংবাদ

চারতলা ভবনে ধস

৪৮ ঘণ্টা পর সন্তানের মৃতমুখ!

প্রকাশিত হয়েছে: নভেম্বর ৫, ২০১৯ , ৪:৩৫ অপরাহ্ণ | আপডেট: নভেম্বর ৫, ২০১৯, ৫:০০ অপরাহ্ণ

Avatar

ধসে পড়া ভবনের পাশেই সন্তানের জন্য অধীর অপেক্ষায় ছিলেন মা-বাবা। আহার-নিদ্রা ভুলে ধসে পড়া ভবনই হয়ে উঠেছিল স্বপ্নের আশ্রয়। কখনও কান্নায় ভেসে যাওয়া কখনও ক্ষীণ আশা বুকে বেঁধে রাখা। হয়তো সন্তান বেঁচে ফিরবে, বেঁচে ফিরবে কোলে। এমন ভাবনাতেই কেটেছে টানা ৪৮ ঘণ্টা। অবশেষে পাওয়া গেছে প্রাণপ্রিয় সন্তানকে। তবে মৃত।

নারায়ণগঞ্জ শহরের বাবুরাইলের মুন্সীবাড়ি এলাকায় ধসেপড়া চারতলা ভবন উদ্ধার করা হয়েছে ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র ওয়াজিদকে (১২)। ভবনের নিচে চাপাপড়া শিশুটির মৃতদেহ উদ্ধারের পর বাবা-মায়ের সঙ্গে সঙ্গে কান্নায় ভেঙে পড়েন এলাকাবাসী।

ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধারকারীরা জানান, ধসে পড়া ভবনের নিচের অংশে চাপা পড়ায় ছেলেটিকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিলো না। অভিযানের ৭৪ ঘণ্টা পর এক পর্যায়ে পানির নিচে মাটির তলায় তার মৃতদেহের সন্ধান পাওয়া যায়।

এর আগে গত ৩ নভেম্বর বিকেলে মুন্সীবাড়ির এইচএম ম্যানশন নামের ভবনটি ধসে পড়ে। এসময় ওই ভবনের নিচ তলায় এক নারীর কাছে পড়াতে আসা ওয়াজিদ ভবনের নিচে চাপা পড়ে। এরপর থেকে ছেলেটিকে উদ্ধারের কাজ শুরু করে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা।

ওয়াজিদের বাবা রুবেল জানান, ভবনটির নিচ তলায় এক শিক্ষিকার কাছে আরবী পড়তে গিয়ে দুর্ঘটনার শিকার হয় তার ছেলে। তবে সেখান থেকে বেঁচে ফেরা না স্বপ্না নামে এক মেয়ে ওয়াজিদের অবস্থান উদ্ধারকারীদের দেখিয়ে দেন। সেই তথ্য অনুযায়ী ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ৪৮ ঘণ্টা উদ্ধার কাজ চালায়।