ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশ স্থগিত

আগের সংবাদ

তিনযুগ পূর্তিতে মহাকালের ‘বাংলা নাট্যোৎসব’

পরের সংবাদ

পরিবাগ থেকে ২৮৮টি বণ্যপ্রাণীর চামড়া উদ্ধার

প্রকাশিত হয়েছে: অক্টোবর ২১, ২০১৯ , ৮:৫৫ অপরাহ্ণ | আপডেট: অক্টোবর ২১, ২০১৯, ৯:১৮ অপরাহ্ণ

Avatar

অবৈধভাবে বন্যপ্রাণীর চামড়া ও ট্রফি দিয়ে তৈরি বিভিন্ন আসবাবপত্র বিক্রির অপরাধে রাজধানীর পরীবাগ সুপার মার্কেটে অভিযান পরিচালনা করেছে বন অধিদফতর। সোমবার (২১অক্টোবর) বিকেল ৪টার দিকে ওই অভিযান শুরু করে বন অধিদফতরের বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন ইউনিট।

ভোরের কাগজকে নিশ্চিত করে বনবিভাগের ওয়াইল্ডলাইফ ক্রাইম কন্ট্রোল (বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন) ইউনিটের পরিদর্শক অসীম কুমার বলেন, র‌্যাব-৩ এর সহাতায় প্রতিষ্ঠানটির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলমের নেতৃত্বে রাজধানীর পরিবাগে অভিযান চালানো হয়। সে সময় ক্রাফট এন্ড ক্রাফট নামে একটি দোকানে অভিযান চালিয়ে চিতাবাঘের একটি চামড়া, ২টি লজ্জাবতী বানরের চামড়া, ২২৭টি গুই সাপের চামড়া, ৩২টি হরিণের চামড়ার ব্যাগ ও একটি সিং উদ্ধার করা হয়। এছাড়াও একটি মেছো বাঘের চামড়া, একটি বন্য বিড়ালের চামড়া, সাপের চামড়ার ২টি মানিব্যাগ ও ২১টি ব্যাগসহ ৩টি সামুদ্রিক প্রবাল উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরো বলেন, আমাদের কাছে গোয়েন্দা তথ্য ছিল পরীবাগ সুপার মার্কেটে বণ্যপ্রাণীর চামড়া দিয়ে বিভিন্ন ট্রফি ও সরঞ্জাম বানিয়ে বিক্রি করছিল প্রতিষ্ঠানটি। বন্য প্রাণী সংরক্ষন নিরাপত্তা আইনের ৩৪ এর খ-ধারায় যা গুরুতর আপরাধ। এরই প্রেক্ষিতে ক্রাফট হ্যান্ডি ক্রাফট এর মালিক মমিনুল ইসলাম ও হুমায়ুন কবীরকে ১ বছরের কারাদণ্ডসহ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।