মুক্তিযোদ্ধা সাংসদের সাক্ষাৎকার নিল ক্ষুদে সাংবাদিকরা!

আগের সংবাদ

শরীয়তপুরের জাজিরায় মা ইলিশ নিধনের মহোৎসব

পরের সংবাদ

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সাকিবের নজর

খেলা প্রতিবেদক :

প্রকাশিত হয়েছে: October 20, 2019 , 12:07 pm

ক্রিকেটে তিন ফরমেটে বর্তমানে দুর্দান্ত দাপট দেখাচ্ছে টাইগার বাহিনী। ওয়ানডে ও টেস্ট সংস্করণে যে কোনো শক্তিশালী দলকে হারাতে সক্ষম বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। তবে টি-টোয়েন্টি ফরমেটে এখনো নিজেদের দাপট দেখাতে পারছে না সাকিব আল হাসানের বাহিনী। আগামী ২০২০ সালের ১৮ অক্টোবর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের অষ্টম আসর বসবে অস্ট্রেলিয়ায়। তাই আসন্ন এ টুর্নামেন্ট উপলক্ষে অংশগ্রহণকারী দেশের অধিনায়করা নিজেদের ভাবনার কথা জানিয়েছেন আইসিসির ওয়েবসাইটে। যেখানে বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান বলেছেন, এখন আমরা অনেক বেশি উপযুক্ত। আসন্ন বিশ্বকাপে সেটা আবার প্রমাণ করতে হবে। এ ছাড়া তিনি বলেন, ভালো ও খারাপ সময় দলকে উৎসাহ জুগিয়েছেন ভক্ত-সমর্থকরা। তারা আমাদের দ্বাদশ খেলোয়াড়।

বর্তমানে টি-টোয়েন্টি র‌্যাঙ্কিংয়ে সন্তোষজনক অবস্থানে নেই বাংলাদেশ। সাকিব আল হাসানের দল দশম স্থানে আছেন। যেহেতু আগামী বছর ১৮ অক্টোবর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ তাই এক বছর আগেই ছক কষতে শুরু করেছেন সাকিব। টি-টোয়েন্টি ফরমেটে নিজদের ব্যর্থতা মেনে নিয়েছেন তিনি। তবে বিভিন্ন টুর্নামেন্টে জ্বলে ওঠার কথাও স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন। বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান বলেন, সত্যি বলতে টি-টোয়েন্টিতে আমরা এখনো ধারাবাহিকতা দেখাতে পারিনি। যেভাবে খেলাটা খেলতে চাই সেটা এখনো পারিনি। তবে বড় টুর্নামেন্টে আমাদের পারফরমেন্স যথেষ্ট ভালো। আগের আসরে আমরা সুপার এইটে খেলেছি, এশিয়া কাপ ও কয়েকটি ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে খেলেছি। ২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ^কাপে ভারত ও অস্ট্রেলিয়া দলের কঠিন পরীক্ষা নিয়েছিলাম।

নিজ দলের খেলোয়াড়দের বিষয়ে তিনি বলেন, আমাদের দলে অনেক তরুণ প্রতিভা এসেছে। দলে অভিজ্ঞতাও আছে যথেষ্ট। মনোযোগ ধরে রেখে আগে প্রথম রাউন্ড পেরোতে হবে। কঠিন কন্ডিশনে মানিয়ে নেয়ার ক্ষেত্রে এখন আমরা অনেক বেশি উপযুক্ত। বিশ্বকাপে সেটা আবারো প্রমাণ করতে হবে।

তা ছাড়া ভক্ত-সমর্থকদের নিয়ে বিশ্বসেরা এ অলরাউন্ডার বলেন, আমি সবসময়ই বলি, সমর্থকরাই আমাদের দলের দ্বাদশ ব্যক্তি। যেখানেই খেলা হোক, বাংলাদেশের সমর্থকরা মাঠে এসে দলকে উজ্জীবিত করে। সাকিব আরো বলেন, অস্ট্রেলিয়ায়ও অনেক প্রবাসী বাংলাদেশি রয়েছে। অতীতে দেখেছি, নিউজিল্যান্ড ও বিশে^র অন্য অনেক দেশ থেকেও এখানে আমাদের খেলা দেখতে এসেছে অনেক দর্শক।

সদ্য সমাপ্ত দ্বাদশ বিশ্বকাপ আসর অনুষ্ঠিত হয়েছে হাজার মাইল দূরে যুক্তরাজ্যে। সেখানে গ্যালারিতে বাংলাদেশের দর্শকদের সমর্থনে মুগ্ধ হয়েছেন সাকিব। তিনি বলেন, এ বছর ইংল্যান্ডে ওয়ানডে বিশ^কাপে বাংলাদেশের সমর্থকরাই ছিল সবচেয়ে বর্ণময় ও ক্রীড়ামোদি। অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডে ২০১৫ বিশ^কাপেও সেটা দেখেছি আমরা। আমাদের দেশে জাতীয় ক্রিকেট দলকে নিয়ে মানুষের আগ্রহ ও উন্মাদনা ক্রমেই বাড়ছে।