রোধ করা যাচ্ছে না স্বর্ণের চোরাচালান

আগের সংবাদ

র‌্যাবের ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান চলছে বসুন্ধরায়

পরের সংবাদ

শুভসূচনা চট্টগ্রাম আবাহনীর

প্রকাশিত হয়েছে: অক্টোবর ১৯, ২০১৯ , ১০:১৪ অপরাহ্ণ | আপডেট: অক্টোবর ১৯, ২০১৯, ১০:১৪ অপরাহ্ণ

Avatar

শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ টুর্নামেন্টের তৃতীয় আসরে গ্রুপ ‘এ’র উদ্বোধনী ম্যাচে শনিবার বর্তমান চ্যাম্পিয়ন টিসি স্পোর্টস ক্লাবকে ৪-১ গোলে হারিয়ে শুভসূচনা করেছে চট্টগ্রাম আবাহনী। আবাহনীর হয়ে জোড়া গোল করেছেন জিনেদান ম্যাথিউ। আর একটি করে গোল করেন ইয়াসিন আরাফাত ও লুকা। আর টিসি স্পোর্টসের হয়ে একমাত্র সান্ত্বনাসূচক গোলটি করেন ইসমাইল ইসা।

এর আগে বর্ণিল আতশবাজির ঝলকানিতে টুর্নামেন্টের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল, মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, টুর্নামেন্ট কমিটির সদস্যসচিব হুইপ সামশুল হক চৌধুরী, টুর্নামেন্টের চিফ কো-অর্ডিনেটর তরফদার মো. রুহুল আমিন।

আরো উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য এমএ লতিফ, আবদুল্লাহ জেকব, পুলিশ কমিশনার মো. মাহাবুবর রহমান, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন, বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান, চট্টগ্রাম চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম।

শনিবার (১৯ অক্টোবর) সাবেক দুই চ্যাম্পিয়নের লড়াইয়ে দাপট দেখিয়ে জিতেছে চট্টগ্রাম আবাহনী। ২০১৫ সালে প্রথম আসরেই চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে চট্টগ্রাম আবাহনী। সে বছর ভারতের ইস্ট বেঙ্গলকে ফাইনাল ম্যাচে ৩-১ গোলে হারিয়ে শিরোপা জেতে ঘরের ছেলেরা। এক বছর বিরতি দিয়ে ২০১৭ সালে আবার মাঠে গড়ায় সাফের দ্বিতীয় আসর। তবে প্রথম আসরের চ্যাম্পিয়ন চট্টগ্রাম আবাহনী সে আসরে সেমিফাইনাল থেকেই বিদায় নেয়। এই আসরে দক্ষিণ কোরিয়ার ক্লাব পোচেন সিটিজেন এফসিকে হারিয়ে শিরোপা জিতে নেয় টিসি স্পোর্টস। তাই এবারের আসরটি চট্টগ্রাম আবাহনীর জন্য শিরোপা পুনরুদ্ধারের মিশন। সেই মিশনের প্রথম ম্যাচেই দারুণভাবে জয় তুলে নিল কোচ মারুফুল হকের শিষ্যরা।

শিরোপা পুনরুদ্ধারের লক্ষ্যে প্রথম থেকেই শক্তিশালী দল গড়ার দিকে নজর দিয়েছে চট্টগ্রাম আবাহনী। তারই অংশ হিসেবে সাইফ স্পোর্টিং থেকে জামাল ভূঁইয়াকে শুধু এই প্রতিযোগিতার জন্য নিয়ে আসে চট্টগ্রাম আবাহনী। তাছাড়া দলকে দেখভালোর জন্য আরামবাগ ক্রীড়াচক্র থেকে কোচ মারুফুল হককেও নিয়ে আসে ক্লাবটি।

ঢাকার মাঠে খেলা হলে মাঠে দর্শক খরা দেখা যায়। এমনকি জাতীয় দলের খেলার সময়ও একই চিত্র দেখা যায়। সেখানে গতকাল চট্টগ্রাম আবাহনী ও টিসি স্পোর্টসের খেলায় দেখা গেছে ভিন্ন চিত্র। পুরো গ্যালারিজুড়ে ছিল বিপুল দর্শক সমাগম। বাংলাদেশ ও কাতারের বিশ^কাপ বাছাইয়ের ম্যাচের আগে ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ভুটানের বিপক্ষে দুটি প্রীতি ম্যাচ খেলেছিল বাংলাদেশ। সেখানেও দর্শকের সংখ্যা ছিল খুবই নগণ্য। সেখানে ক্লাব প্রতিযোগিতায় এমন দর্শক সমাগম বাংলাদেশের ফুটবলের জন্য ভালো ইঙ্গিত।

এদিকে পুরো ম্যাচে অসাধারণ নৈপুণ্য প্রদর্শনের জন্য ম্যাচ সেরার পুরস্কার তুলে দেয়া হয় চট্টগ্রাম আবাহনীর অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়ার হাতে। ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে জামাল ভূঁইয়া বলেন, শুধু একটি ম্যাচ নয়, পুরো আসরের চ্যাম্পিয়ন হতে চাই আমরা। সেই লক্ষ্যে এগিয়ে যাচ্ছি।

গ্রুপ ‘এ’র আরেক ম্যাচ আজ মাঠে নামবে ভারতের মোহন বাগান ও লাওসের ইয়ং এলিফেন্ট এফসি। বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টায় শুরু হবে ম্যাচটি।

  • আরও পড়ুন
  • লেখকের অন্যান্য লেখা