‘সমনিবেল’ দেবে নাক ডাকার সমাধান

আগের সংবাদ

বিজিবির সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে দুই রোহিঙ্গা মাদক পাচারকারী নিহত

পরের সংবাদ

ইনফান্তিনোর আশাবাদ

ফুটবলে সাফল্য এনে দেবে বাংলাদেশের নারীরা

খেলা প্রতিবেদক :

প্রকাশিত হয়েছে: October 18, 2019 , 12:17 pm

বাংলাদেশ ফুটবল পাগল দেশ। ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের ম্যাচটি সম্পর্কে আমি জেনেছি। ম্যাচটিকে ঘিরে মানুষের মধ্যে যে উন্মাদনা তৈরি হয়েছিল তা আমাকে অভিভ‚ত করেছে। একদিনের জন্য বাংলাদেশ সফরে এসে দেশের ফুটবলের প্রতি নিজের এমন সন্তুষ্টির কথাই বারবার প্রকাশ করেছেন ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো। যাওয়ার আগে বাংলাদেশে ফুটবলের অগ্রযাত্রাকে এগিয়ে নিতে বেশি মনোযোগ দেবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন তিনি।
এশিয়া ট্যুরের অংশ হিসেবে গতকাল একদিনের সফরে এসে বাংলাদেশ ঘুরে গেছেন বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফার সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো। সফরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিনের সঙ্গে দেখা করেছেন তিনি।
পূর্বসূচি অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করার পর বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিনের সঙ্গে কথা বলেন তিনি। সবশেষে সোনারগাঁও হোটেলে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন ইনফান্তিনো। সেখানেই কথা বলেন বাংলাদেশের ফুটবলের উন্নয়নের ব্যাপারে। বিশেষ করে নারী ফুটবলারদের উন্নয়নে জোর দেন তিনি। ইনফান্তিনো বলেন, ‘বাংলাদেশের নারী ফুটবলারদের পারফরমেন্স অনেক ভালো। দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম পরাশক্তি তারা। বেশ কয়েকবছর ধরেই নিয়মিত সাফল্য পাচ্ছে । নারী ফুটবলারদের দিকে বিশেষ নজর দিলে তারাই দেশকে সাফল্য এনে দেবে। আমি বাফুফেকে বলব আমাদের সঙ্গে সবসময় যোগাযোগ রাখার জন্য। এই দেশের ফুটবল উন্নয়নে যা যা দরকার তার সবকিছুই আমরা করব। তিনি আরো বলেন, ‘চেষ্টা করছি এশিয়ায় বেশি বেশি প্রতিযোগিতা চালু করার। আর এখানে প্রতিযোগিতা হলে বাংলাদেশও উপকৃত হবে। এশিয়ার এই অঞ্চলে দুশো কোটি লোক আছেন। তারা সবাই ফুটবলকে ভালোবাসে। এমনকি আমি মনে করি ঢাকা ফুটবলের রাজধানী। আমরা এখানে ফুটবলের উন্মাদনা আরো বাড়িয়ে দিতে চাই।
বাংলাদেশে ফুটবলের জনপ্রিয়তা সম্পর্কে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘ফুটবলই বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা। কিন্তু ক্রিকেটে বেশি সাফল্য আসায় সবাই খেলাটিকে নিয়ে মেতে থাকেন। আপনি দেখুন ক্রিকেট কিন্তু বেশি দেশ খেলে না। তাছাড়া ক্রিকেট কজনই বা বোঝে? কিন্তু ফুটবল এমন একটি খেলা যা সবাই বোঝে। একটি বল থাকলেই আপনি খেলা শুরু করে দিতে পারবেন। আনন্দে মেতে উঠতে পারবেন। এই দেশের প্রত্যেকটি মানুষ এখনো ফুটবলকে ভালোবাসে। একটি সাফল্যই বাংলাদেশে ফুটবলকে প্রাধান্য এনে দেবে’। তিনি আরো বলেন, ‘বিশ্বের ২১১টি দেশ ফুটবল খেলে। কিন্তু চ্যাম্পিয়ন একজন।
তাই বলে বাকিরা কি তারা দুর্বল? ফুটবলে সবাই চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য খেলেন। এখানে প্রতিযোগিতাটি একটু বেশি।
ফিফার বর্তমান সভাপতি ইনফান্তিনো দ্বিতীয় মেয়াদে সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি এবারই প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে আসেন। ইনফান্তিনোর আগে ২০০৬ ও ২০১২ সালে দুবার ফিফার সাবেক সভাপতি সেপ ব্লাটার বাংলাদেশ সফরে এসেছিলেন। ব্লাটারেরও আগে ১৯৮০ সালে প্রথমবারের মতো ফিফার সভাপতি হিসেবে বাংলাদেশে এসেছিলেন জোয়াও হাভেলাঞ্জ।
এদিকে বাংলাদেশে সফরে আসার আগে মঙ্গোলিয়া ও দক্ষিণ কোরিয়া সফর করেন তিনি।