বাংলা বর্ষপঞ্জি সংস্কার নিয়ে বিভ্রান্তি

আগের সংবাদ

বিদেশি শিল্পীদের নিয়ে বিজ্ঞাপন তৈরি করলে কর দিতে হবে

পরের সংবাদ

ক্ষুদ্র-মাঝারি শিল্প অর্থনৈতিক উন্নয়নে মূল চালিকাশক্তি

প্রকাশিত হয়েছে: অক্টোবর ১৭, ২০১৯ , ১:২০ অপরাহ্ণ | আপডেট: অক্টোবর ১৭, ২০১৯, ২:০২ অপরাহ্ণ

Avatar

ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প খাত বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে মূল চালিকাশক্তি বলে জানিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন। তিনি বলেন, রপ্তানি প্রবৃদ্ধি, পণ্য বৈচিত্র্যকরণ কর্মসংস্থান সৃষ্টি দারিদ্র্যবিমোচন সার্বিক আর্থ-সামাজিক অগ্রগতিতে এ খাতের গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে। এসএমই ফাউন্ডেশনের গবেষণালব্ধ ফলাফল নারী উদ্যোক্তা উন্নয়নে কার্যকরনীতি ও কর্মসূচি প্রণয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। এর মাধ্যমে নীতিনির্ধারক গবেষক উন্নয়ন কর্মী ও উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা সহ সংশ্লিষ্ট সকলেই এর থেকে উপকৃত হবেন।
আজ বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে ‘ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পখাতে নারী উদ্যোক্তাঃ বাংলাদেশ প্রেক্ষিত ২০১৭’ শীর্ষক গবেষণার তথ্য প্রকাশ অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।
বর্তমানে বাংলাদেশের শতকরা ৯০ ভাগ শিল্প ও ব্যবসা এসএমই খাতের আওতাভূক্ত। খতটি দেশের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডের ৭০ শতাংশই নিয়ন্ত্রণ করে৷ মোট শিল্প কর্মসংস্থানের শতকরা ৮০ থেকে ৮৫ ভাগ সৃষ্টি হচ্ছে এসএমই খাত থেকে। এসএমই খাতে মোট অভ্যন্তরীণ শিল্পপণ্য চাহিদার শতকরা ৩০ থেকে ৩৫ ভাগ যোগান দিয়ে থাকে৷
সারাদেশের ১৫১০ জন নারী উদ্যোক্তার উপর এই গবেষণা পরিচালনা হয়েছে৷ গবেষণায় দেখা গেছে, বর্তমানে ব্যবসায় শিক্ষির নারীদের অংশগ্রহণ বাড়ছে। সামাজিকভাবে পিছিয়ে যাওয়া নারীরা ব্যবসাবান্ধব নীতির কারণে শিল্পায়ন ও ব্যবসায় সম্পৃক্ত হচ্ছেন৷ তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহারেও নারী উদ্যোক্তারা এগিয়ে গেছেন।