শাবককে বাঁচাতে গিয়ে পরিবারের ছয় হাতির মৃত্যু

আগের সংবাদ

সাইত্রিশে মাশরাফি

পরের সংবাদ

লঙ্কা মাতাচ্ছেন মুমিনুল

প্রকাশিত হয়েছে: অক্টোবর ৬, ২০১৯ , ১:০১ অপরাহ্ণ | আপডেট: অক্টোবর ৬, ২০১৯, ১:০১ অপরাহ্ণ

Avatar

শ্রীলঙ্কার ‘এ’ দলের বিপক্ষে চার দিনের দ্বিতীয় আনঅফিসিয়াল টেস্ট ম্যাচের দ্বিতীয় দিনে ঝলক দেখিয়েছে বাংলাদেশ ‘এ’ দল। আর এ ঝলকের দুই কারিগর মেহেদি হাসান মিরাজ ও মুমিনুল হক। মিরাজের বোলিং নৈপুণ্যে টসে জিতে ব্যাট করতে নামা লঙ্কানদের প্রথম ইনিংস থামে ২৬৮ রানে। ৮৪ রান খরচায় ৭ উইকেট তুলে নেন তিনি। অন্যদিকে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশের হয়ে দ্যুতি ছড়িয়েছেন মুমিনুল হক। করেছেন সেঞ্চুরি। আউট হওয়ার আগে ১১৭ রান করেন তিনি। তার ব্যাটিংয়ের ওপর ভর করে দ্বিতীয় দিন শেষে ছয় উইকেট হারিয়ে ২৮৩ রান সংগ্রহ করে বাংলাদেশ। ফলে ১৫ রানের লিড পেয়েছে টাইগাররা। টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের অন্যতম ব্যাটিং কাণ্ডারি মুমিনুল হক। শ্রীলঙ্কার ‘এ’ দলের বিপক্ষে খেলতে যাওয়ার আগে গত মাসে আফগানিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র টেস্ট ম্যাচের প্রথম ইনিংসে হাফসেঞ্চুরির দেখা পান।

এর আগে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে ম্যাচের প্রথম দিন পাঁচ উইকেট হারিয়ে ২২৩ রান করে লঙ্কান দল। প্রথম দিন শেষে মনে হচ্ছিল বড় সংগ্রহের পথেই যাচ্ছে তারা। কিন্তু তাদের বড় সংগ্রহের পথে বাধা হয়ে দাঁড়ান মেহেদি হাসান মিরাজ। গতকাল দ্বিতীয় দিনের শুরুতেই তার বোলিং তোপে পড়ে আর ৪৫ রান তুলতেই বাকি পাঁচ উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। এ ছাড়া লঙ্কানদের দুটি উইকেট শিকার করেন এবাদত ইসলাম। আর একটি উইকেট নিজের ঝুলিত পুরেন সালাউদ্দিন শাকিল। লঙ্কানদের অল্প রানে বেঁধে দিয়ে ব্যাটিংয়ে নামে বাংলাদেশ। বাংলাদেশের হয়ে মুমিনুলের পাশাপাশি ব্যাটিংয়ে ঝলক দেখান ওপেনার সাদমান ইসলাম। আউট হওয়ার আগে তিনি করেন ৭৭ রান। অন্যদিকে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে খেললেও দ্বিতীয় ম্যাচে সুযোগ পাননি ওপেনার সৌম্য সরকার।

এদিকে নভেম্বরের ১৪ তারিখ ভারতের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। ওই ম্যাচের মধ্য দিয়েই আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে যাত্রা শুরু করবে টাইগাররা। শক্তিশালী ভারতের বিপক্ষে টেস্ট খেলার তেমন একটা সুযোগ পায় না বাংলাদেশ। আর তাদের মাটিতে তো আরো কম। তাই ভারত ও টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের কথা বিবেচনা করে বেশ আগে থেকেই প্রস্তুতি নেয়া শুরু করে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। তারই অংশ হিসেবে জাতীয় দলে তুলনামূলক খারাপ পারফরমেন্স করা খেলোয়াড়দের শ্রীলঙ্কায় ‘এ’ দলের জার্সিতে পাঠায় বিসিবি। যেন ভারত টেস্টের আগে নিজেদের ভুলগুলো শুধরে নিতে পারে। বিশেষ করে সৌম্য সরকার ও মেহেদি মিরাজকে এই উদ্দেশে শ্রীলঙ্কায় পাঠানো হয়। মেহেদি মিরাজ বল হাতে দ্যুতি ছড়িয়েছেন। কিন্তু সৌম্য সরকার পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছেন। ফলে দ্বিতীয় ম্যাচের একাদশে জায়গা হয়নি তার। এখন ভারতের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচে তার জায়গা পাওয়া নিয়েই রয়েছে যথেষ্ট সন্দেহ। বিসিবি সিরিজটিকে কতটা গুরুত্ব দিচ্ছে তার আরেকটি উদাহরণ হলো প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো ও বোলিং কোচ চার্ল ল্যাঙ্গাভেল্টের ‘এ’ দলের সঙ্গে যোগদান। প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নুও এখন শ্রীলঙ্কায় রয়েছেন। নির্বাচক ও কোচরা সেখানে থেকে সেরাদের জাতীয় দলের জন্য নির্বাচন করবেন।

চার দিনের টেস্ট সিরিজ শেষে লঙ্কান ‘এ’ দলের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলবে মুমিনুলরা।