দেবীর আগমনে উচ্ছ্বসিত ভক্তরা

আগের সংবাদ

৮০১টি প্রতিমা নিয়ে দেশের বৃহত্তম পূজামণ্ডপ

পরের সংবাদ

সতর্কতা জারি

আত্মঘাতী চার জঙ্গির প্রবেশ দিল্লিতে

প্রকাশিত হয়েছে: অক্টোবর ৪, ২০১৯ , ১১:৩৪ পূর্বাহ্ণ | আপডেট: অক্টোবর ৪, ২০১৯, ১১:৩৪ পূর্বাহ্ণ

Avatar

পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মোহাম্মদের চার সদস্য দিল্লিতে প্রবেশ করেছে এবং তারা উৎসবের সময়ে হামলা চালানোর পরিকল্পনা করছে, গোপন সূত্রে পাওয়া এমন তথ্যের ভিত্তিতে সতর্কাবস্থায় আছে ভারতের নিরাপত্তা বাহিনীগুলো। গত বুধবার সন্ধ্যায় দিল্লি পুলিশের একটি বিশেষ সেলের কাছে রাজধানীতে জঙ্গিদের উপস্থিতি সংক্রান্ত সতর্কবার্তাটি আসে বলে এনডিটিভি জানায়।
চার জঙ্গির সঙ্গেই ভারী অস্ত্র থাকতে পারে, এমনটি জানানো হয়েছে বলে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়। খবরের সূত্রধরে দিল্লিজুড়ে বিশেষ করে নগরীর ঘনবসতিপূর্ণ এলাকাগুলোতে ব্যাপক তল্লাশি শুরু করেছে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা। ভারতের সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদে জম্মু ও কাশ্মিরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে অঞ্চলটিকে দুটি কেন্দ্রশাসিত এলাকায় ভাগ করার সিদ্ধান্তের প্রতিশোধ নিতে সন্ত্রাসী হামলা চালানো হতে পারে, একাধিক সূত্র থেকে এ ধরনের আশঙ্কার কথা নিরাপত্তা সংস্থাগুলোকে জানানো হয়েছে বিগত কয়েক সপ্তাহে।
সন্ত্রাসীরা ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ও জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালকে ‘টার্গেট’ বানানোর পরিকল্পনা করেছে বলে জানায় সূত্রসমূহ। এসব তথ্য পাওয়ার পর থেকেই ভারতজুড়ে সতর্কতা জারি করা হয়। ৩০টি শহরের নামোল্লেখ করে দেয়া হুমকির কথা জানিয়ে ভারতীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সব রাজ্যে সতর্কতা জারি করে। বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার কাছে বিমানঘাঁটিতে হামলার হুমকিবিষয়ক তথ্য আসার পর ভারতীয় বিমানবাহিনীকেও সজাগ থাকতে বলা হয়। গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনাগুলোতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সতর্কতা ‘অরেঞ্জ অ্যালার্ট’ জারি হয়; শ্রীনগর, অবন্তিপুর, জম্মু, পাঠানকোট ও হিন্দনের বিমানঘাঁটিগুলোর নিরাপত্তা জোরদার করা হয়। গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর হাতে আসা তথ্যানুযায়ী, জইশ-ই-মোহাম্মদের জঙ্গিরা বিমানঘাঁটিগুলোতে আত্মঘাতী হামলার পরিকল্পনা করছে। ভারতের বেসামরিক উড়োজাহাজ নিরাপত্তা ব্যুরোর হাতে আসা ১০ সেপ্টেম্বরের একটি চিঠিকে গোয়েন্দা তথ্যের অন্যতম উৎস হিসেবে ধারণা করা হচ্ছে।

  • আরও পড়ুন
  • লেখকের অন্যান্য লেখা