‘জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস’ উদযাপন কমিটির আহবায়ক লিটন

আগের সংবাদ

উন্নত কার্প ও দেশীয় ছোট মাছ উৎপাদনে ব্রুড ব্যাংক স্থাপন

পরের সংবাদ

ভূমি অফিসে দুর্নীতি: সংসদীয় কমিটির অসন্তোষ

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৯ , ৫:৪০ অপরাহ্ণ

এসি ল্যান্ড অফিসসহ ভূমি রেজিস্ট্রেশন অফিসের দুর্নীতি বিষয়ে বিভিন্ন সময়ে গণমাধ্যমের খবরে অসন্তোষ প্রকাশ করেছে আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটি। দেশের সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ লাঘবে ভূমি রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতি ডিজিটাইজেশনের দ্রুত উদ্যোগ নেয়ার সুপারিশ করে কমিটি।

এ দিকে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়- আগামী ২০২৪ সালের মধ্যে দেশের সব ভূমি নিবন্ধন প্রক্রিয়া অটোমেশনের আওতায় আনা হচ্ছে । আর এর জন্য ২০২০ থেকে ২০২৪ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত ৪ বছর মেয়াদী একটি প্রকল্প বাস্তবায়নের লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে। সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ লাঘবে ভূমি রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতি ডিজিটাইজেশনের এ প্রকল্পটি মনিটরিং এর জন্য ৪ সদস্যের একটি সাব কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে স্থায়ী কমিটি সূত্রে জানা গেছে। রবিবার (২২ সেপ্টেম্বর) আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ৫ম বৈঠকের কার্যপত্র থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত বৈঠকে কমিটির সভাপতি আবদুল মতিন খসরুর সভাপতিত্বে কমিটির সদস্য আনিসুল হক, শামসুল হক টুকু, আব্দুল মজিদ খান, শেখ ফজলে নুর তাপস, শামীম হায়দার পাটোয়ারী ও রুমিন ফারহানা বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন। এছাড়া, কমিটির বিশেষ আমন্ত্রণে ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে ল্যান্ড সার্ভে আপিল ট্রাইব্যুনাল সম্পর্কে আলোচনা হয়। কমিটি এ বিষয়ে বিস্তারিত পর্যালোচনা ও সিদ্ধান্ত গ্রহণের স্বার্থে শেখ ফজলে নুর তাপসকে চেয়ারম্যান, আব্দুল মজিদ খান, শামীম হায়দার পাটোয়ারী ও রুমিন ফারহানাকে সদস্য করে একটি সাব-কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

বৈঠকে সূত্রে জানা গেছে- ভূমি রেজিস্ট্রেশন, নামজারী, খাজনা, রেকর্ড ভুক্তিকরণসহ সব ধরনের কাজে অবৈধ অর্থ লেনদেন, দূর্নীতি বা ঘুষ দেয়া এখন নিয়ম হয়ে দাড়িয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন কমিটির একাধিক সদস্য। যার জন্য সব চেয়ে বেশী ভোগান্তিতে পড়তে হয় সাধারণ নাগরিকদের। দেশের সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ লাঘবে ভূমি রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতি ডিজিটাইজেশনের বিষয়টি জরুরী বলে বৈঠকে সুপারিশ আসে। এ সময় ভূমি নিবন্ধন ব্যবস্থাপনা অটোমেশন প্রকল্প গ্রহণের নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছে এবং এ প্রকল্প জানুয়ারি ২০২০ থেকে ডিসেম্বর ২০২৪ সময়ের মধ্যে বাস্তবায়নের লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে বলে আইন ও বিচার বিভাগের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

বৈঠকে আইন কমিশনের চেয়ারম্যান, ভূমি মন্ত্রণালয়ের সচিব, আইন ও বিচার বিভাগের সচিব, মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ ও বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।