যুবলীগ নেতা শামীমের কার্যালয়ে র‌্যাবের অভিযান

আগের সংবাদ

যুবলীগ নেতা শামীমকে আটকে অভিযান

পরের সংবাদ

বিদ্যালয়ের দেয়াল যেন বইয়ের পাতা

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯ , ২:২৮ অপরাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯ , ২:৩৬ অপরাহ্ণ

প্রতিটি শ্রেণিকক্ষ বাংলা ও ইংরেজি রঙিন বর্ণ, মনীষীদের বাণী, গণিতের বিভিন্ন চিহ্ন, আকার-আকৃতি, নামতার ধারণা, বিজ্ঞানের বিভিন্ন আবিষ্কারের ছবি, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি, সাতজন বীরশ্রেষ্ঠের ছবি, পাঠ্যবইয়ের বিভিন্ন ছড়া, শব্দ লিখে সাজানো হয়েছে। মনে হচ্ছে প্রতিটি দেয়াল যেন এক একটি পাঠ্যবইয়ের পাতা। এমন করে জেলার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভবনগুলো সাজানো হয়েছে শিশুদের শিক্ষার উপযোগী করে। ছড়া, কবিতা ও গল্পের সঙ্গে সামঞ্জস্য ছবি দিয়ে সাজানো বিদ্যালয় ভবনগুলো দেখে শিক্ষার্থীরা প্রতিনিয়তই নতুন নতুন কিছু শিখছে।

সরেজমিন নোয়াখালী জেলা সদরের রামবল্লভপুর, দামোদরপুর, বারাহীপুর, কৃপালপুর, মহতাপুর, পূর্ব মহতাপুর, পূর্ব মাইজচরা আবদুল মান্নান, নেয়াজেরডগী, রাওলদিয়াসহ চরমটুয়া, দাদপুর ও আন্ডারচর ইউনিয়নের অর্ধশতাধিক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে এমন চিত্র দেখা যায়। শিক্ষকরা জানান, সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার মুহাম্মদ মুহীউদ্দীনের আন্তরিক প্রচেষ্টায় এ কার্যক্রম দৃশ্যমান করতে পেরেছেন তারা। এতে শিক্ষার্থীদের নজরকাড়া সাড়াও মিলছে। বিদ্যালয়ের দেয়ালে আঁকা ছবি ও লেখা দেখে দেখে নিজ খাতায় তুলে ধরে শিশুরা। দেয়ালের লেখা ও ছবি দেখে আঁকা নিয়ে শিক্ষার্থীদের মধ্যে প্রায় প্রতিযোগিতাও দেখা যায় বলে জানান শিক্ষকরা।

রামবল্লভপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সালমা আক্তার, মো. রাজু, রাজিব হোসেন, তামান্না আখতার, শরীফ হোসেন ও শারমিন আক্তার বলে, বিদ্যালয়ের ভবনের লেখা ও ছবিগুলো দেখতে তাদের ভালো লাগে। দেয়ালে আঁকা ছবি দেখে তারা বঙ্গবন্ধু, সাত বীরশ্রেষ্ঠ ও গুণীজনদের চিনতে পেরেছে। পাঠ্য বইয়ের নানা বর্ণ, অঙ্ক ও চিহ্ন তারা দেয়ালে দেখে দেখে শিখতে পারছেন। নেয়াজের ডগী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক শ্যামলী বালা নাথ বলেন, পাঠ্য বইয়ের পাশাপাশি দেয়ালে লেখা বর্ণ, ছবি ও চিহ্নগুলো শিক্ষার্থীদের মেধা বিকাশে সহযোগী হচ্ছে। সাজানো বিদ্যালয় ভবন দেখে শিক্ষার্থীরা প্রতিনিয়তই নতুন নতুন বিষয় জানতে পারছে। রাওলদিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহমুদ হোসাইন বলেন, সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার মুহাম্মদ মুহীউদ্দীন স্যারের আন্তরিক প্রচেষ্টায় বিদ্যালয়ের পুরো ভবনটি সাজানো হয়েছে শিশুদের শিক্ষার উপযোগী করে। মনে হচ্ছে বিদ্যালয়টি যেন একটি পাঠ্যবই।

উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. জসিম উদ্দিন শেখ জানান, বিদ্যালয়ের ভবনগুলোতে বাংলা ও ইংরেজি রঙিন বর্ণ, মনীষীদের বাণী, গণিতের বিভিন্ন চিহ্ন, আকার-আকৃতি, নামতার ধারণা, বিজ্ঞানের বিভিন্ন আবিষ্কারের ছবি, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিসহ সাতজন বীরশ্রেষ্ঠের ছবি, পাঠ্যবইয়ের বিভিন্ন ছড়া ও শব্দ লেখায় ভবনগুলো বর্ণিল সাজে সেজেছে। অন্যদিকে শিক্ষার্থীরাও পাঠ্যবইয়ের পাশাপাশি দেয়ালের ছবি এবং বর্ণ দেখে নানা বিষয়ে শিখতে পারছে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়