ডেঙ্গু পরিস্থিতি : ২৪ ঘণ্টায় রোগী কমেছে ৩৮ জন

আগের সংবাদ

বিভাগীয় শহরে ক্যান্সার হাসপাতাল নির্মাণ করবে সরকার

পরের সংবাদ

ডাকসু কার্যক্রম

কে সত্য বলছেন, নুরু না সাদ্দাম?

প্রকাশিত হয়েছে: সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯ , ৩:৫৬ অপরাহ্ণ | আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯, ৫:২৩ অপরাহ্ণ

Avatar

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) নানা কার্যক্রমের সিদ্ধান্ত নেয়া ও কর্মপরিকল্পনা প্রণয়নের ব্যাপারে অংশ নিচ্ছেন না ভিপি নুরুল হক নূর। এমন অভিযোগ ডাকসুর সহ-সাধারণ সম্পাদক (এজিএস) সাদ্দাম হোসেনের। তিনি বলছেন, নুরুকে ডাকসুর কোনো প্রোগ্রামে পাওয়া যায় না। স্বাধীনতা দিবসের প্রোগ্রাম, ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে শ্রদ্ধা জানানো কিংবা শিক্ষা দিবসের কর্মসূচিসহ গুরুত্বপূর্ণ প্রোগ্রামে তিনি অনুপস্থিত থাকেন।

তবে ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুর অভিযোগগুলো অস্বীকার করে বলেন, আমাকে কোনো প্রোগ্রামে আমন্ত্রণ জানানো হয় না। আর আমন্ত্রণ না পেলে আমি কীভাবে যাব?

সাদ্দামের অভিযোগ হচ্ছে, ব্যক্তিগত কারণ দেখালেও নুরুল হক আসলে রাজনৈতিক মতাদর্শের জন্য প্রোগ্রামে অনুপস্থিত থাকেন। আমরা দেখতে পাই নুর হলগুলোতে সমস্যা সমাধানে না গিয়ে যান বিভিন্ন দূতাবাসে। শিক্ষার্থীদের স্মার্ট কার্ড সমস্যা সমাধানের চেয়ে তার মনযোগ বেশি নিজের পাসপোর্ট নিয়ে।

সাদ্দাম আরো বলেন, ডাকসুর চেয়ে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ নিয়ে বেশি ব্যস্ত থাকেন। তাকে ঘিরে জঙ্গি সংগঠনকে সক্রিয় হতে দেখেছি আমরা।

মঙ্গলবার ( ১৭ সেপ্টেম্বর) ডাকসু আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এজিএস সাদ্দাম হোসেন ভিপি নুরুর ব্যাপারে আবারো এসব অভিযোগ তোলেন। যেখানে অনুপস্থিত ছিলেন ভিপি নুর। এ ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে সাদ্দাম বলেন, আজকেও নুরকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। কিন্তু তিনি আসেন নি।

তবে ডাকসু ভিপি নুর অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আজকের প্রোগ্রামেও আমি কোনো আমন্ত্রণ পাই নি। আমি ডাকসুতেই ছিলাম, না যাওয়ার কোনো কারণ ছিল না। তিনি আরো বলেন, ডাকসু’র ২৫ সদস্যের ২৩ জনই ছাত্রলীগের। ডাকসু ভিপিকে না জানিয়ে তারা নিজেদের সিদ্ধান্তেই সবকিছু করে। আমাকে তারা ডাকেও না, কিছু বলেও না।