‘সাম্প্রদায়িক কর্মকাণ্ড প্রতিরোধে আইন সংস্কার হচ্ছে’

আগের সংবাদ

ছাত্রদলের কাউন্সিল স্থগিত

পরের সংবাদ

পাঁচ জেলায় দুদকের অভিযান

প্রকাশিত হয়েছে: সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯ , ৮:২৬ অপরাহ্ণ | আপডেট: সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯, ৮:২৮ অপরাহ্ণ

Avatar

দুর্নীতি, অনিয়ম আর অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে দেশের পাঁচ জেলায় ৬টি অভিযান চালিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) এসব অভিযান চালানো হয় বলে জানিয়েছেন দুদক উপপরিচালক (জনসংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য। কুমিল্লা, নওগাঁ, ঝিনাইদহ, টাঙ্গাইল ও চট্টগ্রামে এসব অভিযান পরিচালনা করা হয়।

দুদক জানায়, ফায়ার লাইসেন্স প্রদানে অনিয়মের অভিযোগে কুমিল্লা ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স কার্যালয়ে অভিযান চালায় দুদক। দুদক অভিযোগ কেন্দ্রে (হটলাইন-১০৬) অভিযোগ পেয়ে এ অভিযান চালানো হয়। এ সময় ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের এক চালকের বিরুদ্ধে অনিয়মের প্রমাণও মেলে। তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ করা হয়েছে।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজে অভিযান চালানো হয় টাকা আত্মসাতের অভিযোগে। কলেজের সদ্য বিদায়ী অধ্যক্ষ এ অনিয়মের সঙ্গে জড়িত বলে প্রমাণ পেয়েছে দুদক। দুদক এনফোর্সমেন্ট ইউনিট জানায়, কলেজের গত ১৬ মাসের আয় ও ব্যয়ের হিসাব মিলছে না। এ বিষয়ে নথিপত্র সংগ্রহ করেছে দুদক।
নওগাঁর রাণীনগরে গ্রামীণ অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষণ ও উন্নয়ন কর্মসূচিতে অনিয়মের অভিযোগে অভিযান পরিচালনা করা হয়। দুদক এনফোর্সমেন্ট ইউনিট কর্মসূচির আওতাধীন কাবিখা, টিআর, কাবিটাসহ বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়নে অনিয়মেরও প্রমাণ পেয়েছে। প্রকল্পসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের জিজ্ঞাসাবাদও করেছে দুদক।

এছাড়া ১২৯ মেট্রিক টন ধান বীজ খামারে মজুত করার তথ্য গোপন করে আত্মসাতের অভিযোগে ঝিনাইদহের মহেশপুরে, ডিউটির সময় চিকিৎসকের উপস্থিত না থাকার অভিযোগে টাঙ্গাইলে শেখ হাসিনা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে এবং রোহিঙ্গাদের জাতীয় পরিচয়পত্র দেয়ার অভিযোগে চট্টগ্রামে নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ে অভিযান পরিচালনা করা হয়।