গলাচিপায় বজ্রপাতে কৃষকের মৃত্যু

আগের সংবাদ

ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ৬০ হাজার ছুঁই ছুঁই

পরের সংবাদ

শেখ হাসিনার ট্রেনে গুলি ও বোমা হামলার মামলা দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি টেনুর মৃত্যু

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: August 22, 2019 , 4:36 pm

১৯৯৪ সালে পাবনার ঈশ্বরদীতে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী ট্রেনবহরে গুলি ও বোমা হামলার মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামি হাকিম উদ্দিন ওরফে টেনুর (৬০) মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) ওই মামলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত কয়েদি হিসেবে রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি থাকা অবস্থায় দুপুর ১২টা ২৫ মিনিটে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের প্রিজন সেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

হাকিম ঈশ্বরদীর পশ্চিম টেংড়ি বাবুপাড়া গ্রামের মহসিন আলীর ছেলে ও ঈশ্বরদী পৌর বিএনপির সদস্য।

রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার হাবিবুর রহমান সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, গত ১০ আগস্ট তিনি কারাগারে অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে তাকে দ্রুত রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। এরপর থেকে হাসপাতালের প্রিজন সেলে তার চিকিৎসা চলছিল। চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুরে তার মৃত্যু হয়। হাকিম দীর্ঘদিন ধরে হৃদরোগে ভুগছিলেন। তার ওপেন হার্ট সার্জারি করা ছিল।

জানতে চাইলে জেলার হাবিবুর রহমান বলেন, গত ৩ জুলাই বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী ট্রেনে হামলা মামলার রায়ের পর গত ৯ জুলাই কয়েদি হাকিমকে পাবনা কারাগার থেকে রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থানান্তর করা হয়। সেই থেকে তিনি এখানেই বন্দি ছিলেন। মৃত্যুর পর তার মরদেহ রামেক হাসপাতারের মর্গে নেওয়া হয়েছে। দুপুরের মধ্যেই ময়নাতদন্ত শেষ করা হবে। এরপর তার মরদেহটি পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

উল্লেখ্য গত ৩ জুলাই পাবনার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক রুস্তম আলী চাঞ্চল্যকর এ মামলার রায় ঘোষণা করেন। রায়ে ৯ জনকে মৃত্যুদণ্ড, ২৫ জনকে যাবজ্জীবন ও ১৩ জনকে ১০ বছর করে কারাদণ্ড দেন।