শেখ হাসিনার ট্রেনে গুলি ও বোমা হামলার মামলা দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি টেনুর মৃত্যু

আগের সংবাদ

মিয়ানমারে ফিরতে রোহিঙ্গাদের অনাগ্রহ

পরের সংবাদ

ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ৬০ হাজার ছুঁই ছুঁই

প্রকাশিত হয়েছে: আগস্ট ২২, ২০১৯ , ৫:২৭ অপরাহ্ণ | আপডেট: আগস্ট ২২, ২০১৯, ৫:২৭ অপরাহ্ণ

Avatar

চলতি বছর এডিস মশাবাহিত ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে সরকারি-বেসরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ৬০ হাজার ছুঁই ছুঁই। সরকারি হিসাবে অর্থাৎ স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্ট সেন্টার অ্যান্ড কন্ট্রোল রুমের তথ্যানুসারে ১ জানুয়ারি থেকে ২২ আগস্ট (বৃহস্পতিবার) পর্যন্ত সারাদেশে হাসপাতালে ভর্তি ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ৫৯ হাজার ৫৫২ জন।

ডেঙ্গু রোগীদের মধ্যে চলতি মাসের ২২ দিনে (২২ আগস্ট পর্যন্ত) রেকর্ডসংখ্যক ৪১ হাজার ১৪১ জন ভর্তি হয়েছেন। ডেঙ্গুতে আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে মারা গেছেন ৪৭ জন। এদিকে সরকারি হিসাবের সাথে বেসরকারি হিসাবে গরমিল রয়েছে। বেসরকারি হিসাবে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত, হাসপাতালে ভর্তি ও আক্রান্তদের মধ্যে মৃত্যুর সংখ্যা অনেক বেশি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ বলেন, সরকারি হিসাবে শুধু রাজধানীর ৪১টি সরকারি-বেসরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত হাসপাতাল এবং বিভাগীয় সরকারি হাসপাতালে ভর্তি রোগীর তথ্য উপাত্ত দেখানো হয়েছে। কিন্তু এর বাইরেও অসংখ্য হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছেন, যা হিসাবের মধ্যে আসেনি। ডেঙ্গু আক্রান্তের মতো মৃত্যুর হিসাবেও গরমিল রয়েছে।

তারা আরো বলেন, সরকারি হিসাবে স্বাস্থ্য অধিদফতরের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর) ডেট রিভিউ কমিটির পর্যালোচনায় ঘোষিত মৃত্যুর সংখ্যা দেখানো হয়। বাস্তবতার সাথে যার গরমিল রয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্যানুসারে কয়েক দিন ধরে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা কমতির দিকে। গত ২৪ ঘণ্টায় অর্থাৎ ২১ আগস্ট সকাল ৮টা থেকে আজ ২২ আগস্ট (বৃহস্পতিবার) সকাল ৮টা পর্যন্ত রাজধানীসহ সারাদেশে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ১ হাজার ৫৯৭ জন। তাদের মধ্যে রাজধানীর ৪১টি হাসপাতালে ৭৬১ ও বিভাগীয় শহরে ৮৩৬ জন ভর্তি হয়েছেন।

চলতি বছর প্রায় ৬০ হাজার রোগী হাসপাতালে ভর্তি হলেও ইতোমধ্যে চিকিৎসা শেষে বাড়ি ফিরেছেন ৫৩ হাজার ৩৯৮ জন। বর্তমানে সারাদেশের হাসপাতালে ৬ হাজার ১৪৭ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি রয়েছেন। তাদের মধ্যে রাজধানীতে ৩ হাজার ৩৩২ ও ঢাকার বাইরের বিভিন্ন হাসপাতালে ২ হাজার ৮১৫ জন ভর্তি রয়েছেন।