ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রী চিদাম্বরম গ্রেপ্তার

আগের সংবাদ

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সংশয়

পরের সংবাদ

সেনবাগে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষ, আহত ২৬

নোয়াখালী প্রতিনিধি

প্রকাশিত হয়েছে: August 21, 2019 , 11:06 pm

নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার ছাতারপাইয়া ইউনিয়নে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষ চলাকালে বেশকিছু দোকান ভাঙচুর ও একটি মোটরসাইকেলে আগুন দেওয়া হয়। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ২৬ জন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ চার জনকে আটক করেছে।

বুধবার দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত সোনাইমুড়ী-সেনবাগ সড়কের পল্লীমঙ্গল এলাকার গোলাপ মেম্বরের বাড়ি এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আহতও আটকদের নামপরিচয় জানা যায়নি।

স্থানীয়রা জানায়, মঙ্গলবার বিকেলে স্থানীয় আতাউর রহমান ভূইয়া স্কুল অ্যান্ড কলেজ মাঠে ছাতরপাইয়া ১নম্বর ওয়ার্ড ও ৪নম্বর ওয়ার্ডের মধ্যে একটি প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। খেলায় গোল খাওয়াকে কেন্দ্র করে উভয়পক্ষের লোকজনের মধ্যে কথা কাটাকাটির ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনার জের ধরে বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে সোনাইমুড়ী-সেনবাগ সড়কের পল্লীমঙ্গলের গোলাপ মেম্বরের বাড়ি এলাকায় দুই গ্রামের লোকজন একত্রিত হলে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এরই মধ্যে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে একে অপরের ওপর হামলা করলে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

দফায় দফায় এ সংঘর্ষ চলে বিকেল পর্যন্ত। এসময় কয়েকটি দোকানপাটে ভাঙচুর ও স্থানীয় ইউপি মেম্বরের একটি মোটরসাইকেল আগুন দেওয়া হয়। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের অন্তত ২৬ জন আহত হয়। পরে খবর পেয়ে সেনবাগ ও সোনাইমুড়ী থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ফাঁকা গুলি ছুঁড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

সেনবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, এলাকাটি দুই উপজেলার সীমান্তবর্তী হওয়ায় খবর পেয়ে সেনবাগ ও সোনাইমুড়ী থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে। সোনাইমুড়ী থানা পুলিশ ৬ রাউন্ড শর্টগানের ফাঁকা গুলি করেছে। এছাড়া ঘটনাস্থল থেকে ৪ জনকে আটক করা হয়েছে। পরবর্তীতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।