এবার আর্চারদের স্পেন মিশন

আগের সংবাদ

কুমিল্লায় বাস-অটোরিকশার সংঘর্ষে নিহত ৭

পরের সংবাদ

কলকাতায় গাড়িচাপায় নিহত দুই বাংলাদেশির মরদেহ হস্তান্তর

প্রকাশিত হয়েছে: আগস্ট ১৮, ২০১৯ , ১:২১ অপরাহ্ণ | আপডেট: আগস্ট ১৮, ২০১৯, ১:২১ অপরাহ্ণ

Avatar

কলকাতায় গাড়িচাপায় নিহত দুই বাংলাদেশির মরদেহ বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোস্টে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষা বাহিনী-বিএসএফ।

রবিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে দুই দেশের কাগজপত্রের আনুষ্ঠানিকতা শেষে মরদেহ দুটি হস্তান্তর করা হয় জানান বলে বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন পুলিশের পরিদর্শক মাসুম বিল্লাহ।

শুক্রবার মধ্যরাতে কলকাতার লাউডন স্ট্রিটের কাছে গাড়ি চাপায় মৃত্যু হয় গ্রামীণফোনের রিটেইল সাপোর্ট ম্যানেজার কাজী মুহাম্মদ মঈনুল আলম (৩৬) ও সিটি ব্যাংকের ধানমণ্ডি শাখার সিনিয়র অফিসার ফারহানা ইসলাম তানিয়ার (২৮) ।

একটি অ্যাম্বুলেন্সে করে রবিবার সকালে তাদের মরদেহ বেনাপোল চেকপোস্টে নিয়ে আসা হয়। পরে ইমিগ্রেশনের আনুষ্ঠানিকতা শেষে কফিন বুঝিয়ে দেওয়া হয় অপেক্ষায় থাকা স্বজনতের কাছে।

পরিদর্শক মাসুম বিল্লাহ জানান, কুষ্টিয়ার খোকশা উপজেলার চান্দুর গ্রামের মুন্সি আমিনুল ইসলামের মেয়ে তানিয়ার মরদেহ বুঝে নেন তার চাচাতো ভাই আবু ওবায়দা শাফিন।

আর ঝিনাইদহের বুটিয়াঘাটি গ্রামের কাজী খলিলুর রহমানের ছেলে মঈনুলের মরদেহ তার চাচাতো ভাই জিহাদ আলীর কাছে হস্তান্তর করা হয়।

সড়ক দুর্ঘটনায় বেঁচে যাওয়া শফিউল্লাহ জানান, চিকিৎসার উদ্দেশে তারা গত ১৪ আগস্ট কলকাতায় যান। ১৬ আগস্ট ফারজানা, মাঈনুল ও শফিউল্লাহসহ তিনজন কলকাতার সেক্সপিয়র সরণিতে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে অটোরিকশার জন্য অপেক্ষা করছিলেন। এ সময় দুই দিক থেকে আসা দু’টি প্রাইভেটকারের মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে একটি প্রাইভেটকার উল্টে তাদের গায়ের ওপর এসে পড়ে। এ সময় গুরুতর আহত হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান ফারজানা ও মাঈনুল। ভাগ্যের জোরে বেঁচে যান তিনি।