২৫ সদস্যের দল ঘোষণা

আগের সংবাদ

ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে গোলাগুলি, নিহত ১

পরের সংবাদ

তামিমের জায়গায় ইমরুল!

প্রকাশিত হয়েছে: আগস্ট ১৭, ২০১৯ , ২:১৩ অপরাহ্ণ | আপডেট: আগস্ট ১৭, ২০১৯, ২:১৩ অপরাহ্ণ

Avatar

ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলস বিশ্বকাপের পর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজেও ব্যাট হাতে ব্যর্থ হন তামিম ইকবাল। দুঃসময় কাটাতে এবং মানসিকভাবে নিজেকে চাঙ্গা করতে কয়েকদিনের জন্য বিশ্রাম নিয়েছেন দেশসেরা এই ওপেনার। আগামী মাসে ঘরের মাঠে আফগানিস্তানের বিপক্ষে একটি টেস্ট ম্যাচ খেলবে টাইগাররা। একমাত্র এই টেস্টে খেলবেন না তামিম। এ ছাড়া সেপ্টেম্বরে আফগানিস্তান ও জিম্বাবুয়েকে নিয়ে ঘরের মাঠে একটি ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজ আয়োজন করবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এই সিরিজেও তামিম দলের বাইরে থাকবেন। দেশসেরা ওপেনারের না থাকাটা দল নির্বাচনে বেশ বেকায়দায় ফেলে দিয়েছে ক্রিকেট বোর্ডকে। বিশেষ করে অভিজ্ঞ এই বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যানের জায়গায় দলের হয়ে কে ইনিংস ওপেন করবেন সেটা নির্বাচকদের বেশ ভাবাচ্ছে। এ ক্ষেত্রে টেস্টে ওপেনিংয়ে তামিমের পরিবর্তে বাংলাদেশ দলের ইনিংস উদ্বোধন করতে দেখা যেতে পারে অভিজ্ঞ ইমরুল কায়েসকে। বিসিবির ঊর্ধ্বতন কয়েকজন কর্মকর্তা এমনই ইঙ্গিত দিয়েছেন।
গত কয়েক বছর ধরে ওয়ানডেতে তামিমের সঙ্গে ইনিংস ওপেন করছেন সৌম্য সরকার। প্রতিপক্ষ দলের বোলিং আক্রমণ দেখে কখনোবা সৌম্য আবার সৌম্যর জায়গায় তামিমের সঙ্গী হতে দেখা গেছে লিটন দাশকে। একই চিত্র টি- টোয়েন্টিতেও। তবে টেস্টের দৃশ্যপট আলাদা। টাইগাররা শেষবার টেস্ট সিরিজ খেলেছে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে। গত বছরের
ফেব্রুয়ারি-মার্চে কিউইদের মাটিতে অনুষ্ঠিত ২ ম্যাচের ওই টেস্ট সিরিজে ওপেনিংয়ে তামিমের সঙ্গী হন সাদমান ইসলাম।
তামিমের সঙ্গে দলের ইনিংস ওপেন করে সাদমান অবশ্য খুব একটা খারাপ করেননি। ওই সিরিজে দুই ম্যাচে তার ব্যাট থেকে আসে ১১৭ রান। সাদমানের টেস্ট অভিষেক হয়েছিল অবশ্য এর আগের সিরিজে। ঘরের মাটিতে উইন্ডিজের বিপক্ষে অনুষ্ঠিত ওই সিরিজে একটি ম্যাচ খেলে এক ইনিংসে ব্যাটিং করে ৭৬ রান করেন তিনি, যা এখন পর্যন্ত তরুণ এই ব্যাটসম্যানের ক্যারিয়ারের সর্বোচ্চ রানের ইনিংস।
বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানের মধ্যকার একমাত্র টেস্ট ম্যাচটি শুরু হবে আগামী ৫ সেপ্টেম্বর। একমাত্র এই টেস্টে সাদমানের খেলাটা একপ্রকার নিশ্চিতই বলা যায়। তবে তামিম যেহেতু নেই, তাই ওপেনিংয়ে তার সঙ্গী কে হবেন, তা নিয়ে বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীদের মনে তৈরি হয়েছে নানান প্রশ্ন। আর তামিমের জায়গাটা নিতে পারেন ইমরুল।
অর্থাৎ আফগানদের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে টাইগারদের পক্ষে ইনিংস ওপেন করবেন ইমরুল ও সাদমান। অবশ্য ওপেনিংয়ে সাদমানের সঙ্গে সৌম্যকে দেখা গেলেও অবাক হওয়ার কোনো কারণ নেই। কারণ এই দুজনের একসঙ্গে দলের ইনিংস ওপেন করার অভিজ্ঞতা রয়েছে। গত নভেম্বরে উইন্ডিজের বিপক্ষে এই দুজন দলের হয়ে উদ্বোধনী জুটিতে করেছিলেন ৪২ রান। কিন্তু সৌম্য যেহেতু কিছুটা মারমুখী ঢঙের, তাই ওপেনিংয়ে ইমরুলকে দেখা যাওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। এ ছাড়া অভিজ্ঞতার বিচারেও এগিয়ে আছেন ইমরুল। বাঁ-হাতি এই ব্যাটসম্যান শেষবার টেস্ট খেলেছেন ২০১৮ সালে। ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে ওই ম্যাচে উভয় ইনিংস মিলিয়ে ৪৬ রান করেছিলেন তিনি। ২০০৮ সালের নভেম্বরে সাদা পোশাকের জার্সিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হওয়া ইমরুল এ পর্যন্ত ৩৭টি টেস্ট ম্যাচ খেলেছেন। করেছেন ১৭৭৬ রান। এর মধ্যে আছে ৩টি সেঞ্চুরি ও ৪টি হাফসেঞ্চুরি। সর্বোচ্চ ১৫০।
টেস্ট ওপেনিংয়ে বাংলাদেশ দলের সর্বোচ্চ রানের রেকর্ডটির সঙ্গে জড়িয়ে আছে ইমরুলের নাম। ২০১৫ সালে খুলনায় পাকিস্তানের বিপক্ষে তামিমের সঙ্গে ৩১২ রানের জুটি গড়েছিলেন তিনি, যা টাইগারদের ক্রিকেট ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রানের জুটি। এ ছাড়া তামিম-ইমরুলের নামের পাশে আরো একটি দুইশোর্ধ্ব রানের জুটি আছে। সেটা ২২৪ রানের। এই জুটিটি হয়েছিল ২০১৪ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে।
টেস্টে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক তামিম ইকবাল বিশ্রামে। তার জায়গায় সুযোগ পেলে ইমরুলকে নিতে হবে বড় দায়িত্ব। অভিজ্ঞ ইমরুল সুযোগ পেলে আস্থার প্রতিদান দেবেন এমনটিই প্রত্যাশা ভক্তদের।