শুটিংয়ে ব্যস্ত তারকা শিল্পীরা

আগের সংবাদ

কোচ নিয়োগের হিড়িক

পরের সংবাদ

আত্মবিশ্বাসী জাহানারা

প্রকাশিত হয়েছে: আগস্ট ১০, ২০১৯ , ৩:১৭ অপরাহ্ণ | আপডেট: আগস্ট ১০, ২০১৯, ৩:১৭ অপরাহ্ণ

Avatar

টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ দলের পারফরমেন্স খুবই নাজুক। সেটা ছেলেদের ক্রিকেট হোক কিংবা মেয়েদের। আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি-মার্চে অস্ট্রেলিয়ায় বসবে নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসর। নারীদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত তিনবার অংশগ্রহণ করেছে টাইগ্রেসরা। প্রতিবারই তাদের ফিরতে হয়েছে শূন্য হাতে। একবারও পায়নি বড় কোনো সফলতা। তবে আসন্ন বিশ্বকাপে সাফল্যের গল্প লিখতে বদ্ধপরিকর বাংলাদেশের নারী ক্রিকেটাররা। কিন্তু মূলপর্বে অংশগ্রহণের টিকেট পাওয়ার আগে টাইগ্রেসদের পাড়ি দিতে হবে বাছাইপর্বের কঠিন বাধা। সবশেষ নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল বাংলাদেশ। আর রানার্সআপ হয়েছিল আইরিশ নারীরা। ২০২০ সালের টি- টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও বাছাইপর্বের পথ পেরিয়ে বিশ্বকাপে অংশ নিতে হবে এশিয়ার চ্যাম্পিয়নদের। বাংলাদেশ ও আয়ারল্যান্ড সহ বাছাইপর্বে অংশ নেবে মোট ৮টি দেশ। যেখানে অন্য ৬টি দেশ হলো স্কটল্যান্ড, থাইল্যান্ড, যুক্তরাষ্ট্র, পাপুয়া নিউগিনি, নেদারল্যান্ডস ও নামিবিয়া। বাছাইপর্বে স্বাগতিক হিসেবে খেলবে স্কটিশ নারীরা।
বাছাইপর্বের লড়াই শুরু হবে এ বছরের ৩১ আগস্ট থেকে। আর শেষ হবে ৭ সেপ্টেম্বর। ৮টি দল দুটি গ্রুপে ভাগ হয়ে বাছাইপর্বে অংশ নেবে।
বাংলাদেশের মেয়েরা তাদের প্রথম ম্যাচ খেলবে পাপুয়া নিউগিনির বিপক্ষে। ‘এ’ গ্রুপে টাইগ্রেসদের অন্য দুই প্রতিপক্ষ স্বাগতিক স্কটল্যান্ড ও যুক্তরাষ্ট্র।
এদিকে বাছাইপর্বকে সামনে রেখে ইতোমধ্যেই কঠোর অনুশীলন শুরু করেছেন জাহানারা-সালমারা। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডও (বিসিবি) বিশ্বকাপের মূল পর্বে যাওয়ার চ্যালেঞ্জে টাইগ্রেসদের প্রস্তুতিতে কোনো ঘাতটি রাখতে নারাজ।
বাছাইয়ের আগে একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। ম্যাচটিতে টাইগ্রেসদের প্রতিপক্ষ নেদারল্যান্ডস। এই ম্যাচটি হবে আগামী ২৯ আগস্ট।
বাছাইপর্বের ‘বি’ গ্রুপে গতবারের ফাইনালিস্ট আয়ারল্যান্ডের সঙ্গী নামিবিয়া, নেদারল্যান্ডস ও থাইল্যান্ড। নামিবিয়া অবশ্য প্রাথমিকভাবে বাছাইপর্বের টিকেট পায়নি। জিম্বাবুয়েকে আইসিসি বহিষ্কার করায় কপাল খুলেছে দেশটির।
বিশ্বকাপ বাছাইয়ের সেমিফাইনাল হবে আগামী ৫ ও ৬ সেপ্টেম্বর। আর ৭ সেপ্টেম্বর মাঠে গড়াবে ফাইনাল।
এদিকে বাছাইয়ের পথ পাড়ি দিয়ে বিশ্বকাপের মূলপর্বে অংশগ্রহণের ব্যাপারে যথেষ্ট আশাবাদী বাংলাদেশ নারী দলের পেসার জাহানারা আলম। দুটি ম্যাচ জিততে চান তিনি। তার ভাষায়, আমরা গতবার বাছাইয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলাম। এবারো ভালো করব বলে আশাবাদী। আমাদের প্রস্ততি ভালো। শুধু বাছাই নয়, আমরা বিশ্বকাপের মূল লড়াইয়ে ভালো করতে চাই। দুটি ম্যাচ জিততে চাই আমরা। আর আমি বিশ্বস করি যে সে সামর্থ্য আমাদের রয়েছে।