বিএসএমএমইউতে ৪০ বেডের ডেঙ্গু সেল

আগের সংবাদ

দল হিসেবে আমাদের ঘুরে দাঁড়ানো প্রয়োজন: তামিম

পরের সংবাদ

মক্কায় ১৭ বাংলাদেশি হজযাত্রীর মৃত্যু

প্রকাশিত হয়েছে: জুলাই ২৭, ২০১৯ , ৫:০০ অপরাহ্ণ | আপডেট: জুলাই ২৭, ২০১৯, ৫:০৬ অপরাহ্ণ

কাগজ প্রতিবেদক

চলতি মৌসুমে মক্কায় পবিত্র হজব্রত পালনে গিয়ে এ পর্যন্ত ১৭ বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে ঢাকা ও কুমিল্লা জেলার বাসিন্দা রয়েছেন তিন জন করে, দুই জন করে আছেন বগুড়া ও কক্সবাজারের। এছাড়া চট্টগ্রাম, রাজশাহী, বরিশাল, শরিয়তপুর, নাটোর, টাঙ্গাইল ও সাতক্ষীরার বাসিন্দা আছেন এক জন করে। শনিবার (২৭ জুলাই) ধর্ম মন্ত্রণালয়ের হজ বিষয়ক ওয়েবসাইট থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

ওয়েবসাইটের তথ্য অনুসারে, গত ৬ জুলাই মারা যান রাজধানীর মিরপুরের বাসিন্দা সালিম (৫৬)। ১২ জুলাই মারা গেছেন মো. সালজার রহমান (৬১)। তার গ্রামের বাড়ি বগুড়ার বালুয়ায়। একই দিন মারা যান কুমিল্লার আন্দিকোট গ্রামের আবুল হাশেম (৬১)। ১৩ জুলাই মৃত্যুবরণ করেন এম এফ এম আফজাল হোসেন (৬৫)। তার গ্রামের বাড়ি বগুড়ার কুন্দগ্রামে।

১৫ জুলাই মারা যান ঢাকার মোহাম্মদপুরের বাসিন্দা বেগম তাহমিনা নাসরিন (৪৮)। ১৬ জুলাই মারা গেছেন ঢাকার দোহারের বাসিন্দা মো. আব্দুস সালাম (৫৩)। একই দিন মারা যান কুমিল্লার সিদলাই গ্রামের বাসিন্দা মুহাম্মদ মোহরাম আলী (৬৪) ও চট্টগ্রামের ছনহারার বাসিন্দা মোহাম্মাদুল হক (৬৭)। ১৭ জুলাই মারা যান মোসা. কুলসুম বেগম (৬৯)। তার গ্রামের বাড়ি রাজশাহীর সারাংপুরে।

১৮ জুলাই মারা গেছেন তিন জন। তারা হলেন শরিয়তপুরের বড়কান্দির বাসিন্দা আব্দুল মান্নান মাল (৭১), কক্সবাজারের সাহারবিলের বাসিন্দা আবু তালেব (৮২) ও একই জেলার ইসলামপুর গ্রামের বাসিন্দা সাফিউজ্জামান (৬০)। ১৯ জুলাই মারা গেছেন বরিশালের চরকালেখা গ্রামের মুহাম্মদ আব্দুল খালেক (৬৪)। ২৪ জুলাই মারা যান নাটোরের লালপুরের বাসিন্দা মো. জাহাঙ্গীর হোসেন (৬৯)।

২৫ জুলাই মারা গেছেন দুই জন হাজি। তারা হলেন টাঙ্গাইলের ভাওড়ার বাসিন্দা এম এম লুৎফর রহমান (৬৪) ও কুমিল্লার ঝলম (উত্তর) গ্রামের বাসিন্দা ফায়েগ উল্লা (৬৫)। সবশেষ গত শুক্রবার (২৬ জুলাই) মারা গেছেন সাতক্ষীরার কেড়াগাছি গ্রামের বাসিন্দা মো. ইদ্রিস আলী (৬২)।

এবছর হজে যাওয়ার কথা রয়েছে প্রায় ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ বাংলাদেশির। গত ৪ জুলাই থেকে শুরু হয়েছে হজ ফ্লাইট, চলবে আগামী ৪ আগস্ট পর্যন্ত। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স এবছর মোট ৬৩ হাজার ৫৯৯ জন হজযাত্রী পরিবহন করবে। অবশিষ্টরা যাবেন সৌদি এয়ারলাইন্সে।

  • আরও পড়ুন
  • লেখকের অন্যান্য লেখা