হল অব ফেমে শচিন

আগের সংবাদ

ব্যান্ডউইথের দাম কমলেও খরচ কমে না ইন্টারনেটের

পরের সংবাদ

শ্রীলঙ্কা যাওয়া হচ্ছে না মাশরাফির

প্রকাশিত হয়েছে: জুলাই ২০, ২০১৯ , ৩:২১ অপরাহ্ণ | আপডেট: জুলাই ২০, ২০১৯, ৩:২১ অপরাহ্ণ

Avatar

দ্বাদশ বিশ্বকাপ এখন অতীত হয়ে গেছে। সেমিফাইনালে অংশগ্রহণকে প্রাথমিক লক্ষ্য বানিয়ে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত এই বিশ্বকাপে অংশ নিয়েছিল টাইগাররা। কিন্তু সেই প্রত্যাশা পূরণ হয়নি। শেষ চারে থাকা তো দূরের কথা, মাশরাফি বিন মুর্তজার দলকে বিশ্বকাপ মিশন শেষ করতে হয় পয়েন্ট টেবিলের ৮ নম্বরে থেকে। দ্বাদশ বিশ্বকাপের ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে এখন ভবিষ্যতের পরিকল্পনা ঠিক করার পালা। এই মাসের শেষ সপ্তাহে শ্রীলঙ্কার মাটিতে ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ দল। এই সিরিজকে সামনে রেখে গত মঙ্গলবার ১৪ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে বিসিবি। দলে থাকা সাব্বির রহমান, মোহাম্মদ মিঠুন, এনামুল হক বিজয় ও রুবেল হোসেন চট্টগ্রামে আফগানিস্তান ‘এ’ দলের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ খেলায় ব্যস্ত আছেন। এই চারজন ছাড়া স্কোয়াডে থাকা অবশিষ্ট ক্রিকেটাররা আজ দুপুরে শ্রীলঙ্কার উদ্দেশে দেশ ছাড়বেন। দেশ ছাড়ার আগে গতকাল সংবাদ সম্মেলনে এসেছিলেন মাশরাফি। জানিয়েছেন লঙ্কা সফর নিয়ে নিজের ভাবনার কথা। তবে বিপত্তিটা ঘটে সংবাদ সম্মেলন শেষে অনুশীলন করতে গিয়ে। অনুশীলনের সময় পায়ে চোট পেয়েছেন তিনি। আর চোটের কারণে শ্রীলঙ্কা সফর থেকে ছিটকে গেছেন এই পেসার। এদিকে একই কারণে শ্রীলঙ্কা সফরে যেতে পারছেন না ফর্মে থাকা অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনও। মাশরাফি ও সাইফের জায়গায় স্কোয়াডে ডাক পেতে পারেন তাসকিন আহমেদ ও ফরহাদ রেজা।
মাশরাফি যে শ্রীলঙ্কা সফরে যাচ্ছেন না সেটা নিশ্চিত করে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু সাংবাদিকদের বলেন, তার চোট গুরুতর। শ্রীলঙ্কায় যাওয়া হচ্ছে না।
অথচ শুরুতে বোর্ড ঘোষিত ১৪ সদস্যের দলের নেতৃত্বে ছিলেন মাশরাফি। গতকাল বিকেলে সংবাদ সম্মেলনে কথাও বলেছেন তিনি।
এ সময় লঙ্কানদের মাটিতে হতে যাওয়া আসন্ন ওয়ানডে সিরিজে কারা এগিয়ে থাকবে এমন প্রশ্নের জবাবে মাশরাফি বলেন, আমি মনে করি দুই দলই সমান অবস্থানে থেকে সিরিজ শুরু করবে। শ্রীলঙ্কা ঘরের মাঠে ভালো খেলে। তাদের দলে এমন কয়েকজন ক্রিকেটার আছে যারা দীর্ঘদিন ধরে খেলছে। বিশ^কাপে আমাদের মতোই তিনটি জয় পেয়েছে তারা। বড় দলগুলোর মধ্যে হারিয়েছে ইংল্যান্ডকে। নিদাহাস ট্রফির উত্তেজনাটা আসন্ন সিরিজেও দুই দলের মধ্যেই থাকবে। সব মিলিয়ে মনে হচ্ছে বেশ প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে। তবে আমি আমার দলের ভালো করার ব্যাপারে আশাবাদী।
দ্বাদশ বিশ্বকাপে প্রত্যাশামতো ফল পায়নি বাংলাদেশ। আগামী বিশ্বকাপের কথাও তাই ভাবা শুরু করতে হবে। তবে তাড়াহুড়ো করতে নারাজ মাশরাফি। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজটিকে খুব গুরুত্বের সঙ্গেই নিয়েছেন তিনি। তাই এখানে কোনো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে অনিচ্ছুক ম্যাশ।
এ বিষয়ে ম্যাশের মন্তব্য, আমরা এখনো অত শক্তিশালী দল হয়নি। আমাদের জন্য প্রতিটা সিরিজই গুরুত্বপূর্ণ। অনেকেই হয়তো সিনিয়রদের বিশ্রাম দিয়ে তরুণদের সুযোগ দেয়ার কথা বলবেন। সেটা ভবিষ্যতে করা যেতে পারে। ২০২৩ সালের বিশ্বকাপকে সামনে রেখে আগামী এক/দুই বছর পর সেটা করতেই হবে। কিন্তু এখন আমাদের জন্য শ্রীলঙ্কা সিরিজটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। এই সিরিজে পরীক্ষা-নিরীক্ষার কোনো সুযোগ নেই।
দ্বাদশ বিশ^কাপে টাইগারদের সাফল্যের চেয়ে ব্যর্থতাই বেশি। আর এই ব্যর্থতার দায়ভারটা সবচেয়ে বেশি নিতে হচ্ছে মাশরাফি বিন মুর্তজাকে। শ্রীলঙ্কা সফরকে সামনে রেখে গতকাল সংবাদ সম্মেলনে কথা বলতে এসে আবারো দ্বাদশ বিশ^কাপের ব্যর্থতা প্রসঙ্গে মুখ খোলতে হয় ম্যাশকে। আর মাশরাফিও অকপটে মেনে নিয়েছেন দল ও নিজের ব্যর্থতার কথা। বিনাতর্কে বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে সফল অধিনায়ক মাশরাফি। তাকেই বলা হয় টাইগার ক্রিকেটের পরশ পাথর। ওয়ানডেতে বদলে যাওয়া বাংলাদেশের রূপকার তো তিনিই। বিশ^কাপে দল প্রত্যাশা পূরণ করতে না পারলেও মাশরাফির নেতৃত্বগুণ ঠিকই প্রশংসা কুড়িয়েছে ক্রিকেটবোদ্ধাদের। তবে বোলার মাশরাফির পারফরমেন্স একেবারে হতাশাজনক। ৮ ম্যাচে পেয়েছেন মাত্র ১ উইকেট। নিজের ১০ ওভারের বোলিং কোটা পূরণ করতে পেরেছেন কেবল একটি ম্যাচে। গতকাল বিশ^কাপের পারফরমেন্স নিয়ে কথা বলতে গিয়ে মাশরাফি বলেন, সত্যি বলতে আমি খুব হতাশ। ভীষণ আপসেট। অনেকেই হয়তো বলবেন এটা নিয়ে মন খারাপ না করতে। তবে যদি বলি মন খারাপ হচ্ছে না বা বিশ^কাপের ব্যর্থতা মাথা থেকে ঝেড়ে ফেলেছি সেটা হবে লজ্জার। আমার দুটি দায়িত্ব ছিল- অধিনায়ক ও পারফরমার হিসেবে। কিন্তু পারফরমার হিসেবে আমি কিছুই করতে পারিনি।
চোট নিয়েই বিশ্বকাপে খেলেছেন মাশরাফি। পারফরমেন্স খারাপ হওয়ার পেছনে এটাও বড় কারণ। আর এবার সেই চোটই মাশরাফিকে শ্রীলঙ্কা সফর থেকে ছিটকে দিল।
উল্লেখ্য, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটি হবে আগামী ২৬ জুলাই। এরপর ২৮ ও ৩১ জুলাই হবে সিরিজের শেষ দুটি ম্যাচ।

  • আরও পড়ুন
  • লেখকের অন্যান্য লেখা