কুমিল্লায় সড়ক দুর্ঘটনায় সেনা সদস্য নিহত

আগের সংবাদ

আগস্টে খুলবে মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার: প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী

পরের সংবাদ

প্রিয়া সাহার বক্তব্যে আমরাই ডিজিটাল বাংলাদেশের নিন্দা

প্রকাশিত হয়েছে: জুলাই ২০, ২০১৯ , ৯:৩৩ অপরাহ্ণ | আপডেট: জুলাই ২০, ২০১৯, ৯:৩৩ অপরাহ্ণ

Avatar

বাংলাদেশে সংখ্যালঘুদের নিপীড়ন নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে প্রিয়া সাহার করা অভিযোগের তীব্র নিন্দা জানিয়েছে আমরাই ডিজিটাল বাংলাদেশ। শুক্রবার এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে মাধ্যমে সংগঠনটি নিন্দা জানায়।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গত সপ্তাহে ধর্মীয় স্বাধীনতা ও সহিষ্ণুতার জন্য বিশ্বের বিভিন্ন ধর্মীয় নেতা ও প্রতিনিধিদের সঙ্গে তার অফিসে কথা বলেন।

এ সময় নিজেকে বাংলাদেশি পরিচয় দেয়া প্রিয়া সাহা ট্রাম্পকে বলেন, ‘বাংলাদেশ প্রায় ৩ কোটি ৭০ লাখ হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান নিখোঁজ রয়েছেন। দয়া করে আমাদের সাহায্য করুন। আমরা আমাদের দেশেই থাকতে চাই। এখনো সেখানে ১ কোটি ৮০ লাখ সংখ্যালঘু রয়েছেন। দয়া করে আমাদের সাহায্য করুন। আমি আমার ঘরবাড়ি হারিয়েছি। তারা আমার ঘরবাড়ি জ্বালিয়ে দিয়েছে এবং জমিজমাও দখল করেছে। কিন্তু এর কোনো বিচার হয়নি,’ যোগ করেন তিনি।

কারা জমি ও ঘরবাড়ি দখল করেছে তা ট্রাম্প জানতে চাইলে প্রিয়া সাহা বলেন, সব সময় রাজনৈতিক আশ্রয়ে থাকা মুসলিম মৌলবাদী সংগঠনগুলো এসব দখল করেছে’।

আমরাই ডিজিটাল বাংলাদেশের সেক্রেটারি জেনারেল লিয়াকত হোসাইন বলেন, ‘প্রিয়া সাহার যে কথাগুলো বলেছেন তা মিথ্যাচার। আবার কোনো জটিল ষড়ষন্ত্রও হতে পারে। বাংলাদেশে মুসলিম, হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টানসহ সব ধর্মের মানুষ সৌহার্দ্যপূর্ণ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নিয়ে বসাবস করছে, তার এই নালিশ এই সম্প্রীতির বিরুদ্ধে একটা ষড়ষন্ত্র।’

তিনি আরো বলেন, ‘ধর্মীয় সম্প্রতির এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত আমাদের বাংলাদেশ। অনেকেই ব্যক্তি স্বার্থে দেশের ক্ষতি করেন। তবে যারা দেশকে ভালোবাসে তারা কখনো দেশকে ছোট করে না। দেশের মানহানি হয় সেই কাজ থেকে বিরত থাকে।’

সে সঙ্গে আমরাই ডিজিটাল বাংলাদেশের পক্ষ থেকে অবিলম্বে প্রিয়া সাহাকে গ্রেফতারের দাবি জানানো হয়। তার এই মিথ্যা ও বানোয়াট বক্তব্য দেবার কারণ উৎঘাটন এবং এর পিছনে জড়িত দোষী ব্যক্তিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন সংগঠনের নেতারা।