বগুড়া-৬ উপনির্বাচন: ভোট শেষ, চলছে গণনা

আগের সংবাদ

দ্বিগুণ দামে ফ্ল্যাট কিনলেন তামান্না!

পরের সংবাদ

ইস্তাম্বুলের ফের বিরোধী প্রার্থীর জয়

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত হয়েছে: জুন ২৪, ২০১৯ , ৭:০৮ অপরাহ্ণ

তুরস্কের বৃহত্তম শহর ইস্তাম্বুলে ফের অনুষ্ঠিত মেয়র নির্বাচনে পরাজিত হয়েছে ক্ষমতাসীন একে পার্টি। খবর বিবিসির। তুরস্কের প্রধান বিরোধীদল ‘রিপাবলিকান পিপলস পার্টি’র (সিএইচপি) প্রার্থী ইকরাম ইমামোগলু ৭ লাখ ৭৫ হাজার ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন। এর আগে মার্চের নির্বাচনে মাত্র ১৩ হাজার ভোটের ব্যবধানে জয় পেয়েছিলেন তিনি।

গত ২৫ বছর ধরে ইস্তাম্বুলে একে পার্টি তাদের ক্ষমতা ধরে রেখেছিল। এই ফলাফলের মধ্য দিয়ে এর সমাপ্তি ঘটলো।

এবার শতকরা ৯৯ শতাংশ ভোট গণনা করা হয়েছে। এর মধ্যে ইমামোগলু পেয়েছেন ৫৪ শতাংশ ভোট ও বিনালি ইলদিরিম পেয়েছেন ৪৫ শতাংশ ভোট।

মার্চে অনুষ্ঠিত মেয়র নির্বাচনেও জয়ী হয়েছিলেন ইমামোগলু। কিন্তু ক্ষমতাসীন দল ভোটে অনিয়মের অভিযোগ আনলে ওই নির্বাচন বাতিল করে নতুন নির্বাচন দেয় তুরস্কের নির্বাচন কমিশন।

ইমামোগলুর প্রতিদ্বন্দ্বী একে পার্টির প্রার্থী ও তুরস্কের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইলদিরিম পরাজয় স্বীকার করে নিয়েছেন।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিজেপ তায়িপ এরদোয়ান বিজয়ী ইমামোগলুকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। এক টুইট বার্তায় তিনি লিখেছেন, প্রাথমিক ফলাফলের ভিত্তিতে জয়ী ইকরাম ইমামোগলুকে অভিনন্দন জানাচ্ছি।

ইস্তাম্বুলের মেয়র নির্বাচনে এই হারকে এরদোয়ানের জন্য বড় ধরনের বিপর্যয় হিসেবে দেখা হচ্ছে। ২০০৩ সাল থেকে তুরস্কে তার পার্টি ক্ষমতায় রয়েছে। তিনি একসময় বলেছিলেন, যে ইস্তাম্বুল জয় করতে পরবে, সে তুরস্কও জয় করতে পারবে।

বিজয়ী ইমামোগলু তার ভাষণে বলেন, ভোটের এই ফলাফল ইস্তাম্বুল ও তুরস্কের জন্য এক নবসূচনা। ইস্তাম্বুলে আমরা এক নতুন অধ্যায় শুরু করছি। এ অধ্যায় হবে ন্যায়বিচার, সমতা আর ভালবাসায় পরিপূর্ণ।

তিনি প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানের সঙ্গে কাজ করতে প্রস্তুত বলেও জানিয়েছেন।

ইস্তাম্বুলে এ জয়কে আধুনিক তুরস্কের সবচেয়ে প্রভাবশালী প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানের রাজনৈতিক জীবনের সবচেয়ে বড় পরাজয় হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে।