এবার দ্বিতীয় সেঞ্চুরি করে মাহমুদউল্লাহর পাশে সাকিব

আগের সংবাদ

নেত্রকোনায় বৃদ্ধ বাবাকে গলা টিপে হত্যা, ছেলে আটক

পরের সংবাদ

বিশ্বকাপের যে তালিকায় সাকিবের আগে ৩ জন

প্রকাশিত হয়েছে: জুন ১৭, ২০১৯ , ১০:৫৫ অপরাহ্ণ | আপডেট: জুন ১৭, ২০১৯, ১০:৫৫ অপরাহ্ণ

Avatar

সাকিব আল হাসানের নামের পাশে রেকর্ডের অভাব নেই। দেশ কিংবা আন্তর্জাতিক পর্যায়ে সাকিবের অসংখ্য রেকর্ডের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে আরও একটি রেকর্ড।

এবারের রেকর্ড আবার ক্রিকেটের সর্বোচ্চ টুর্নামেন্ট বিশ্বকাপের মঞ্চে। মাত্র চতুর্থ ক্রিকেটার হিসেবে বিশ্বকাপে টানা চার ইনিংসে ফিফটির কৃতিত্ব দেখালেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার।

এর আগে ১৯৮৭ সালের বিশ্বকাপে প্রথম এই কীর্তি গড়েন ভারতীয় ব্যাটসম্যান নবজিৎ সিং সিধু। বিশ্বকাপে টানা চার ইনিংসে তিনি যথাক্রমে ৭৩,৭৫, ৫১ ও ৫৫ রান করেন তিনি। এরপর দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে এই কৃতিত্ব দেখান সর্বকালের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান শচিন টেন্ডুলকার।

১৯৯৬ সালের বিশ্বকাপে দুই সেঞ্চুরি সহ টানা চার ইনিংসে শচিন করেন ১২৭,৭০,৯০ ও ১৩৭ রান। এরপর ২০০৭ বিশ্বকাপে টানা চার ইনিংসে ৬৭,৯১,৭৪ ও ৫৯ রান করেন প্রোটিয়া ওপেনার গ্রায়াম স্মিথ। সাকিব এই তালিকায় থাকলেও তিনি আলাদা অন্য একটি কারণে।

বিশ্বকাপে টানা চার ইনিংসে পঞ্চাশর্ধ রান করা সবাই ওপেনার। ওপেনার ব্যতিত প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে টানা চার ইনিংসে ফিফটি করলেন সাকিব। বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৭৫ রানের ইনিংস খেলার পর দ্বিতীয় ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে খেলেন ৬৪ রানের ইনিংস তিনি।

এরপরের ম্যাচে ইংল্যান্ডে বিপক্ষে খেলেন ১২১ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলেন এই অলরাউন্ডার। আজ ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষেও তুলে নিয়েছেন ফিফটি। আয়ারল্যান্ডের ত্রিদেশীয় সিরিজের ফিফটিসহ সাকিব দেশের হয়ে টানা পাঁচ ফিফটি করলেন।

বাংলাদেশের পক্ষে টানা ৫ ফিফটির আগের রেকর্ডটি ছিল তামিমের। ২০১২ এশিয়া কাপে- পাকিস্তান, ভারত, শ্রীলঙ্কা এবং ফাইনালে পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলেন যথাক্রমে ৬৪, ৭০, ৫৯, ৬০ রানের। তারপরের ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ঘরের মাঠের সিরিজের প্রথম ম্যাচেও ফিফটি করে টানা পাঁচ ফিফটি পূর্ণ করেন এই ব্যাটসম্যান।

চলতি বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকা

১. সাকিব আল হাসান – ৪ ইনিংসে ৩৪৬*
২. অ্যারন ফিঞ্চ – ৫ ইনিংসে ৩৪৩
৩. রোহিত শর্মা – ৩ ইনিংসে ৩১৯
৪. ডেভিড ওয়ার্নার – ৫ ইনিংসে ২৮১
৫. জো রুট – ৪ ইনিংসে ২৭৯

  • আরও পড়ুন
  • লেখকের অন্যান্য লেখা