যা বললেন সাবেকরা

আগের সংবাদ

ধোনির মহানুভবতা

পরের সংবাদ

মোড় ঘুরিয়ে দেবেন আমির-ভুবনেশ্বর

প্রকাশিত হয়েছে: জুন ১৬, ২০১৯ , ১২:৫৩ অপরাহ্ণ | আপডেট: জুন ১৬, ২০১৯, ১২:৫৩ অপরাহ্ণ

Avatar

দ্বাদশ বিশ্বকাপের আজকের ম্যাচে মাঠে নামছে উপমহাদেশের দুই ক্রিকেটীয় পরাশক্তি ভারত ও পাকিস্তান। এই দুদলের ম্যাচ মানে অন্যরকম এই আবহ, যেন যুদ্ধ যুদ্ধ ভাব। দুই দলে তারকা খেলোয়াড়ের অভাব নেই। ভারতে আছেন বিরাট কোহলি, এম এস ধোনি, জাসপ্রিত বুমরাহ, লোকেশ রাহুল ও রোহিত শর্মার মতো তারকা ক্রিকেটাররা। অন্যদিকে ফখর জামান, বাবর আজম, শোয়েব মালিক, মোহাম্মদ হাফিজ, সরফরাজ আহমেদ, হাসান আলির মতো সময়ের আলোচিত ক্রিকেটাররা আছেন পাকিস্তানের স্কোয়াডে। তবে এত তারকার ভিড়েও নজর থাকবে মূলত দুই পেসারের দিকে। তারা হলের পাকিস্তানের মোহাম্মদ আমির ও ভারতের ভুবনেশ্বর কুমার। দুজনই এবারের বিশ্বকাপে দারুণ ছন্দে আছেন। ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যকার আজকের ম্যাচে পার্থক্য গড়ে দিতে পারেন এই দুই পেসার।
এবারের বিশ্বকাপ হচ্ছে ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলসে। ইংলিশ কন্ডিশন মানেই পেসারদের দাপট। তাই পাকিস্তানের বিশ্বকাপ স্কোয়াডে মোহাম্মদ আমিরের নাম থাকাটা একপ্রকার নিশ্চিতই ছিল। অথচ সবাইকে বিস্মিত করে আমিরকে বাদ দিয়েই দ্বাদশ বিশ্বকাপের জন্য ১৫ সদস্যের চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছিল ১৯৯২ সালের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। তাই এবারের বিশ্বকাপটা খেলারই কথা ছিল না আমিরের। কিন্তু বিশ্বকাপের আগে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে পেসার জুনাইদ খানের ব্যর্থতায় আমিরের কপাল খোলে। শেষ মুহূর্তে এসে জুনাইদের পরিবর্তে আমিরকে বিশ্বকাপ দলে জায়গা দেয় পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। আর আস্থার প্রতিদানটা ইতোমধ্যেই দিয়েছেন এই বাঁহাতি পেসার। দ্বাদশ বিশ্বকাপে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হয় পাকিস্তান। ওই ম্যাচে আমির একাই নেন ৫ উইকেট। উইন্ডিজের বিপক্ষে খেলা নিজেদের প্রথম ম্যাচে ৩ উইকেট নেন আমির। পরের ম্যাচে সরফরাজ আহমেদের দলের প্রতিপক্ষ ছিল ইংল্যান্ড। ওই ম্যাচে ২ উইকেট নিয়ে দলের জয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন তিনি। পাকিস্তানের পরের ম্যাচটি ছিল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। ম্যাচটি বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হয়। ২০০৯ সালের ৩০ জুলাই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ওয়ানডে অভিষেক হয় আমিরের। ফিক্সিংয়ের শাস্তিস্বরূপ ২০১০ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত দীর্ঘ ৬ বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বাইরে কাটাতে হয়েছে তাকে। জাতীয় দলের হয়ে এখন পর্যন্ত ৫৪টি ওয়ানডে খেলে ৭০ উইকেট পেয়েছেন আমির। এটিই তার ক্যারিয়ারের প্রথম বিশ্বকাপ।
অন্যদিকে ভারতীয় পেসার ভুবনেশ্বর কুমারেরও ক্যারিয়ারের প্রথম বিশ্বকাপ এটি। দ্বাদশ বিশ্বকাপে ভারতের প্রথম ম্যাচ ছিল দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। ওই ম্যাচে ২ উইকেট নিয়ে প্রোটিয়া বধে অবদান রাখেন এই পেসার। পরের ম্যাচে অজিদের বিপক্ষে নেন ৩ উইকেট। আর ভারতের তিন নম্বর ম্যাচটি বৃষ্টির কারণে মাঠে গড়ায়নি। ওই ম্যাচে প্রতিপক্ষ ছিল নিউজিল্যান্ড। ভুবনেশ্বর কুমারের ওয়ানডে অভিষেক হয় ২০১২ সালের ৩০ ডিসেম্বর। ওই ম্যাচে ভারতের প্রতিপক্ষ ছিল পাকিস্তান। ম্যাচটিতে ২ উইকেট নিয়েছিলেন তিনি। জাতীয় দলের হয়ে এখন পর্যন্ত ১০৭টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলে ১২৩ উইকেট পেয়েছেন ভুবনেশ্বর কুমার। ২০১৫ সালের বিশ্বকাপে ভারতের স্কোয়াডে ছিলেন এই পেসার। তবে খেলেছিলেন মাত্র ১টি ম্যাচ। ওই ম্যাচে ১৯ রান খরচায় ১ উইকেট পেয়েছিলেন তিনি।
মোহাম্মদ আমির ও ভুবনেশ্বর কুমার দুজনেরই প্রধান শক্তি সুইং। পাশাপাশি বেশ ভালো গতিও রয়েছে তাদের বলে। ভারত-পাকিস্তান মহারণে এই দুজন বল হাতে কতটা জ্বলে উঠতে পারেন সেটাই এখন দেখার পালা।