হট ফেভারিট ভারতের প্রতিপক্ষ উড়তে থাকা নিউজিল্যান্ড

আগের সংবাদ

স্পিনারদেরও দায়িত্ব নিতে হবে

পরের সংবাদ

সমর্থকদের নজর এখন টনটনে

প্রকাশিত হয়েছে: জুন ১৩, ২০১৯ , ১২:১২ অপরাহ্ণ | আপডেট: জুন ১৩, ২০১৯, ১২:১২ অপরাহ্ণ

Avatar

বৃষ্টির কারণে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলতে না পারায় অধিনায়ক মাশরাফি, কোচ স্টিভ রোডসসহ বাংলাদেশ দলের সব ক্রিকেটার স্বাভাবিকভাবেই হতাশ। বাংলাদেশের সমর্থকদের হতাশাও তাদের চেয়ে কম নয়। বিশেষত ব্রিটেনে বাংলাদেশের টাইগার সমর্থক, বৃষ্টি উপেক্ষা করে যারা খেলা দেখতে গিয়েছিলেন তাদের হতাশাটা যেন অন্য সবার চেয়ে বেশি। কাজে ছুটি নিয়ে মাঠে গিয়েও খেলা দেখতে না পারায় তাদের পুরো দিনটাই মাটি হয়েছে। বাংলাদেশের খেলোয়াড়- কোচদের মতো সমর্থকদেরও একটা আশা ছিল, শ্রীলঙ্কার বিপরীতে জয়ী হয়ে পুরো পয়েন্ট পাবে দল। কিন্তু বিধিবাম। প্রকৃতিই যেন আমাদের বিপরীতে চলে গেল। বৃষ্টির বাগড়ায় ম্যাচটি পরিত্যক্ত হওয়ায় একটি মূল্যবান পয়েন্ট হাতছাড়া হয়েছে বলে মনে করছেন ব্রিটেনের টাইগার সমর্থকরা।
ব্রিটেনের আকাশ মেঘাচ্ছন্ন থাকলেও সামারসেটের টনটন কাউন্টি গ্রাউন্ডে অস্ট্রেলিয়া-পাকিস্তান ম্যাচ ঠিকই অনুষ্ঠিত হয়েছে গতকাল। বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কার পরিত্যক্ত ম্যাচের হতাশা কাটিয়ে পৃথিবীর কোটি কোটি দর্শক এ ম্যাচটি উপভোগ করেছে।
মানুষ যখন উপভোগ করছে এ খেলা, সে সময় ব্রিস্টল ছেড়ে টনটনের উদ্দেশে রওয়ানা হয়েছে বাংলাদেশ দল। ১৭ জুন সেখানেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের মুখোমুখি হবে টাইগাররা। এ কারণে সেখানেই প্রস্তুতি নেবে তারা। সম্প্রতি আয়ারল্যান্ডে অনুষ্ঠিত ত্রিদেশীয় সিরিজে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে পরাজিত করে শিরোপা জিতলেও বিশ্বকাপের হিসাব ভিন্ন। তাই আগামী ম্যাচটি গুরুত্বের সঙ্গেই নিয়েছে বাংলাদেশ। ব্রিস্টলের হতাশা কাটিয়ে আগামীকাল টনটনের সামারসেট কাউন্টি ক্রিকেট মাঠের কমিউনিটি ক্লিনিকে অনুশীলন করবে টাইগাররা, প্রস্তুতি শুরু করবে আরেকটা জয়ের।
এদিকে বিশ্বকাপের খেলা দেখতে উন্মুখ দর্শক বিশেষত বাংলাদেশ, পাকিস্তান এবং ভারতের খেলাকে কেন্দ্র করে ব্রিটেনে একটা জালিয়াত চক্র কাজ করছে। ইতোমধ্যে অনেক বাংলাদেশি দর্শকও এ জালে আটকা পড়েছেন। যারা অনলাইন ক্রিকেট কিনেছেন, তারা ডাকযোগে টিকেট পাচ্ছেন। ওয়েবসাইটে আরেকটা অপশন আছে, যেখান থেকে টিকেট ডাউনলোড করে প্রিন্ট করে খেলা দেখা যায়। এ টিকেট প্রিন্ট করার পর ডাকযোগে পাঠানো আরিজিনাল টিকেটটি আর স্ক্যানে কাজ করে না, অর্থাৎ আসল টিকেটটি তখন বাতিল হয়ে যায়। প্রিন্ট করা টিকেটই তখন কার্যকর থাকে। এই সুযোগে জালিয়াত চক্র ডাকযোগে পাওয়া টিকেটটি আসল দামে বিক্রি করে ফেলে। এভাবেই প্রতারিত হচ্ছে অনেক দর্শক। বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা খেলার দিন এবং নিউজিল্যান্ড-বাংলাদেশ খেলার দিনও এরকমভাবে প্রতারিত হওয়া কিছু বাংলাদেশি দর্শকের হতাশ চেহারা চোখে পড়েছে অনেকের।

  • আরও পড়ুন
  • লেখকের অন্যান্য লেখা