জ্বালানি খরচ কমাতে চাইলে

আগের সংবাদ

রপ্তানিতে দেশীয় পণ্যের মান বাড়ানোর তাগিদ শিল্পমন্ত্রীর

পরের সংবাদ

গাড়িতে মোবাইল চার্জ দেবেন না

প্রকাশিত হয়েছে: জুন ৯, ২০১৯ , ৪:৫৭ অপরাহ্ণ | আপডেট: জুন ৯, ২০১৯, ৪:৫৭ অপরাহ্ণ

Avatar

দীর্ঘ ভ্রমণে বের হয়েছেন। খেয়াল করলেন, ফোনের চার্জ শেষ অথবা ফোন এখনই বন্ধ হয়ে যাবে এমন অবস্থা। আপনি করলেন কি চার্জের জন্য গাড়ির ইউএসবি পোর্টে ফোনকে সংযুক্ত করে দিলেন। ঘর থেকে অফিসে আসা-যাওয়া অথবা ট্রাফিক জ্যামে আটকা পড়ার ক্ষেত্রেও গাড়ির ইউএসবি পোর্টে ফোন চার্জ দেয়ার অভ্যাস থাকতে পারে। এ বিষয়টিকে ক্ষতিকর মনে হচ্ছে না আপনার। কিন্তু আসলে কি তাই? এটা জেনে রাখুন, ফোনে যতটুকু ইলেক্ট্রিসিটি প্রয়োজন গাড়ির ইউএসবি পোর্ট তার চেয়ে কম ইলেক্ট্রিসিটি সরবরাহ করে। এর ফলে চার্জের সময় ফোন স্থবির বা থেমে থাকতে পারে অথবা ফোনে যে পরিমাণে চার্জ হয় তাকে চার্জ হয়নি বললে অত্যুক্তি হবে না। স্টেমোবাইলের টেকনিশিয়ান ব্রাড নিকোলস বলেন, ‘অনেকে লক্ষ্য করেন, ঘর থেকে কর্মস্থলে
আসা-যাওয়ার ৩০-৬০ মিনিটের পথে ফোনে চার্জ হয়েছে খুবই কম পরিমাণে। এর প্রধান কারণ হলো, গাড়িতে বিদ্যমান চার্জার যতটুকু শক্তি সরবরাহ করছে তাদের ফোন তার চেয়ে বেশি শক্তি ব্যবহার করছে।’ নিকোলস আরো বলেন, আপনার ফোন খুব বেশি শক্তি গ্রহণ করতে পারে, যদি ফোনে চার্জ দেয়ার জন্য সিগারেট লাইটার পোর্ট ব্যবহার করেন। বেশিরভাগ সিগারেট লাইটার ১০ অ্যাম্পিয়ার পর্যন্ত সরবরাহ করতে পারে, যেখানে অধিকাংশ চার্জার এক থেকে তিন অ্যাম্পিয়ার সরবরাহ করে।
ত্রুটিপূর্ণ বা ড্যামেজড চার্জার অসংগত শক্তি সরবরাহ করে, যার ফলে ফোনের তাপমাত্রা হঠাৎ করে বেড়ে যেতে পারে, ফোনের ভেতরের যন্ত্রাংশ ড্যামেজ হতে পারে অথবা বিরল ক্ষেত্রে ফোন অকেজো বা বিস্ফোরিত হতে পারে। পথে গাড়ি থেকে ফোনে চার্জ দিলে গাড়ির ব্যাটারির শক্তিও নিঃশেষ হয়ে যেতে পারে।