টাইগারদের জার্সির চাহিদা তুঙ্গে

আগের সংবাদ

আমরা অমৃতসর এসে গেছি

পরের সংবাদ

এখনো বেতন পাননি অনেক পোশাক শ্রমিক

প্রকাশিত: জুন ৩, ২০১৯ , ১:৫১ অপরাহ্ণ আপডেট: জুন ৩, ২০১৯ , ১:৫১ অপরাহ্ণ

রমজানের ঈদ কড়া নাড়ছে। এখনো সব গার্মেন্টস শ্রমিক বেতন পাননি। তবে বোনাস পেয়েছেন বেশির ভাগ শ্রমিক। তৈরি পোশাক কারখানা মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
শ্রমিকদের সংগঠন বাংলাদেশ পোশাক শিল্প শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি তৌহিদুর রহমান বলেন, ঈদ উপলক্ষে প্রায় সব গার্মেন্টস আজকে বন্ধ হয়ে যাবে। অথচ এখনো ৪০ শতাংশ কারখানায় শ্রমিকদের বেতন দেয়া হয়নি। এসব কারখানার মালিকদের কেউ কেউ অর্ধেক বেতন দেয়ার কৌশল গ্রহণ করেছেন। আবার কেউ কেউ বলছেন, ঈদের ছুটি কাটিয়ে আসার পরপরই বেতন দিয়ে দেয়া হবে। তবে বেশির ভাগ মালিক বোনাস দিয়েছেন বলে জানান তিনি।
তার কথার সঙ্গে একমত পোষণ করেন বিজিএমইএর সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট এম এ মান্নান কচি। তিনি বলেন, বিজিএমইএর সদস্যভুক্ত ৯০ শতাংশ কারখানায় বোনাস দেয়া হয়েছে। তবে সেই অনুসারে বেতন দেয়া হয়নি। এখনো বেশ কিছু কারখানায় বেতন দেয়া বাকি রয়েছে। বিজিএমইর সভাপতি রুবানা হক বলেন, রবিবারের মধ্যে আশা করি সব কারখানার মালিকরা শ্রমিকদের বেতন ও বোনাস পরিশোধ করবে। তার জন্য সব ধরনের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। যেসব কারখানার মালিকের বেতন পরিশোধ করা সক্ষমতা নেই, তারা মেশিনারিজ বিক্রি করে শ্রমিকদের বেতন দিচ্ছেন। বেতন-বোনাসের বাইরে কেউ থাকবে না।
এর আগে সরকার ও গার্মেন্টস মালিকরা বসে গত ২৩ মে সিদ্ধান্ত নেন যে, ৩০ মের মধ্যে বিজিএমএর সদস্য সব কারখানার শ্রমিকদের বোনাস দেয়া হবে। কিন্তু ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশের তথ্য মতে, গত ৩০ মে পর্যন্ত ৫৪ দশমিক ৪৯ শতাংশ কারখানা মালিক তাদের শ্রমিকদের বোনাস দিয়েছেন। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি বোনাস ও বেতন দিয়েছে আশুলিয়া এলাকার কারখানাগুলো। আর সবচেয়ে কম দিয়েছে মহাখালী, মালিবাগ, মৌচাক এলাকার কারখানাগুলো।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়