সন্ধি

আগের সংবাদ

প্রেম ও অতঃপর

পরের সংবাদ

ঘুমের সিঁড়ি বেয়ে

প্রকাশিত হয়েছে: জুন ২, ২০১৯ , ১:১৪ অপরাহ্ণ | আপডেট: জুন ৩, ২০১৯, ৩:২৩ অপরাহ্ণ

Avatar

ঘুমের শাদা অন্ধকার ছিঁড়ে আমার নিন্দ্রার প্রজাপতি ওড়ে অথচ ঘর আর আলোর টেরেস বোঝে অপারক বিশ্বাস ও আস্থার অতল তীব্রতার অপেক্ষাসমূহ
চোখের আর কী দোষ বলো নীল প্লাবনের এই গভীর তর্জমা কেইবা পড়তে পারে?
স্বভাবের পিচ্ছিল মিন দৃষ্টি অন্যদিকে অসমাপ্ত দর্শনের প্রাচীন আঁধার উত্তুঙ্গ কামের বিদ্যাপীঠে রামায়ণ কাঁদে জলমৃত্যুশোকে এভাবে জীবনের যতি ও বিরাম নিয়ে আমি প্রতিদিন ঈশ্বর হয়ে উঠছি
ঝলসে যাওয়া রোঁয়ার উদগত মিথ্যে দৃশ্যের বহ্নি এবং বিষাদের ব্যাকরণ মিলিয়ে যে অগ্রন্থিত কাব্য তাকেই আমি ঈশ্বর বলে ডাকি প্রতিফলনের নতুন নামে তাই নিয়মের বাইরে বৃত্তের বলয় ভেঙে যে বিভাজন তীরন্দাজের বেরসিক আফ্রোদিতি অভিযোগ জড়ো করলে ঘুমভাঙা ঈশ্বরের জন্ম হয়

আজ আমি নক্ষত্র চুমুর ভাঁজে ভাঁজে ব্রহ্মচারী মনের আকাশ পোখরাজের লাল স্মৃতি পোড়ে অলীক আগুনের নন্দিতনিদ্রায় প্রার্থনারত!