‘ঈদের পর রাজধানীতে টিকিট ছাড়া গণপরিবহনে চলাচল নয়’

আগের সংবাদ

ক্যান্সারে কন্যা হারালেন ক্রিকেটার আসিফ আলী

পরের সংবাদ

বুথফেরত জরিপের ফল প্রত্যাখ্যান বিরোধীদের

প্রকাশিত হয়েছে: মে ২০, ২০১৯ , ৫:৩৭ অপরাহ্ণ | আপডেট: মে ২০, ২০১৯, ৫:৩৭ অপরাহ্ণ

Avatar

ভারতে ভোটের লড়াই শেষ, অপেক্ষা শুধু ফল ঘোষণার। বুথফেরত জরিপ বলছে, টানা দ্বিতীয়বারের মতো নিরঙ্কুশ জয়ে ক্ষমতায় বসছে নরেন্দ্র মোদীর দল ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি)। তবে, একে ‘স্রেফ কল্পনা’ উল্লেখ করে আগাম ফলাফল প্রত্যাখ্যান করেছে বিরোধী দলগুলো।

রোববার (১৯ মে) শেষপর্বের ভোটগ্রহণ শেষে বিভিন্ন বুথফেরত জরিপের ফলাফলে বলা হয়, বিজেপি নেতৃত্বাধীন ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্স (এনডিএ) বিশাল ব্যবধানে জিতে ভারতে সরকার গঠন করবে। জরিপগুলোর ফলাফল অনুযায়ী, এনডিএ সর্বোচ্চ ৩৬৫ ও সর্বনিম্ন ২৪২ আসনে জিতবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

গড়ে এনডিএর হাতে আসছে ২৯৫টি আসন, যেখানে ভারতে সরকার গঠন করতে প্রয়োজন হয় ২৭২টি আসন।

বুথফেরত জরিপের এ ফলাফলকে স্বাগত জানিয়েছে বিজেপি। এ নিয়ে দলের নেতা-কর্মী, সমর্থকদের অভিনন্দনও জানিয়েছে দলটি।

তবে, বিরোধী দলগুলো বলছে, বুথফেরত জরিপে খুশি হওয়ার কিছু নেই। কারণ, অতীতে বেশ কয়েকবার এর ফলাফল ভুল প্রমাণিত হয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল কংগ্রেসের সভানেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এক টুইট বার্তায় বলেছেন, বুথফেরত জরিপের গুঞ্জন বিশ্বাস করি না। গুঞ্জন চলাকালে হাজারো ইভিএম বদলে দেওয়ার পরিকল্পনা হচ্ছে।

এ পরিস্থিতিতে সব বিরোধী দলগুলোকে একজোট হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তৃণমূল সভানেত্রী। তিনি বলেন, আমি সব বিরোধী দলগুলোকে শক্ত ও ঐক্যবদ্ধ হওয়ার অনুরোধ জানাই। সবাই এক হয়ে এ যুদ্ধ লড়তে হবে।

বুথফেরত জরিপের ফলাফলে বিশ্বাস নেই কংগ্রেস নেতা শশী থারুরেরও। উদাহরণ হিসেবে তিনি অস্ট্রেলিয়ায় সাম্প্রতিক নির্বাচনে ৫৬টি বুথফেরত জরিপ ভুল হওয়ার কথা উল্লেখ করে এক টুইট বার্তায় বলেন, আমার বিশ্বাস, সব বুথফেরত জরিপই ভুল। ভারতে অনেকেই সরকারের ভয়ে জরিপ কর্মকর্তাদের কাছে সত্যটা বলেন না।

এজন্য ২৩ তারিখ চূড়ান্ত ফলাফলের জন্য অপেক্ষা করার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

ভারতের ১৭তম লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা ছিল কংগ্রেসের সঙ্গে। এছাড়া বিভিন্ন রাজ্যে আঞ্চলিক দলগুলোর সঙ্গেও হাড্ডাহাডি লড়াইয়ের আভাস পাওয়া গিয়েছিল। তবে সাতপর্বের ভোট শেষে দেখা যাচ্ছে, সে ধারণা অনেকটাই ভুল। সংসদে একক আধিপত্য দেখাতে যাচ্ছে বিজেপি।

বলা হয়, উত্তর প্রদেশে যে দল সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়, তারাই সরকার গঠন করে। এ রাজ্যের ৮০টি আসনের মধ্যে ২০১৪ সালে বিজেপি ৭১টি আসনে জিতে ক্ষমতায় বসেছিল।

বেশিরভাগ বুথফেরত জরিপে দেখা যাচ্ছে, এবারের নির্বাচনেও ৩৮-৬৮টি আসনে জিতবে বিজেপি।

তবে, নিয়েলসন-এবিপি ও নিউজ এক্স-নেটার বুথফেরত জরিপে বলা হয়েছে, উত্তর প্রদেশে ৪০টির বেশি আসনে হারবে বিজেপি। নিয়েলসন-এবিপির দাবি, এনডিএ রাজ্যটিতে মাত্র ২২টি আসন পাবে। নিউজ এক্স-নেটা বলছে, এ জোট ৩৩টি আসন পেতে পারে।

শুধুমাত্র এ দু’টি বুথফেরত জরিপেই বলা হয়েছে, বিজেপি জোট সরকার গঠনের মতো সংখ্যাগরিষ্ঠা নাও পেতে পারে।