ঈদে পেশাদার ড্রাইভার ছাড়া কেউ গাড়ি চালাতে পারবে না : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

আগের সংবাদ

ছাত্রলীগের পদবঞ্চিতদের রাজু ভাস্কর্যে অবস্থান কর্মসূচি

পরের সংবাদ

মোদির বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ তৃণমূলের

প্রকাশিত হয়েছে: মে ১৯, ২০১৯ , ৪:১৯ অপরাহ্ণ | আপডেট: মে ১৯, ২০১৯, ৪:১৯ অপরাহ্ণ

Avatar

ভোটের আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কেদারনাথে ধ্যান ও পরিদর্শন ব্যাপকভাবে টেলিভিশনে তুলে ধরা হচ্ছে তাতে নির্বাচনী আদর্শ আচরণবিধি লঙ্ঘন হয়েছে বলেই নির্বাচন কমিশনের কাছে অভিযোগ করেছে তৃণমূল কংগ্রেস।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন দল আজ নির্বাচন কমিশনকে একটি চিঠিতে জানিয়েছে,চলতি লোকসভা নির্বাচনের শেষ পর্যায়ের নির্বাচনী প্রচারাভিযান ১৭ মে, সন্ধ্যা ৬ টায় শেষ হয়ে গেছে। আশ্চর্যজনকভাবে শ্রী নরেন্দ্র মোদির কেদারনাথ যাত্রাটি সব জাতীয় ও স্থানীয় গণমাধ্যমে তুলে ধরা হচ্ছে এবং গত দুইদিন ব্যাপকভাবে টেলিভিশনে প্রচারিত হচ্ছে। এটি আচরণবিধি লঙ্ঘন বলে তৃণমূলের সংসদ সদস্য ডেরেক ও’ব্রায়ানের স্বাক্ষরিত চিঠিতে জানান হয়।

উত্তরাখণ্ডের বিজেপির টুইটারে পোস্ট করা ছবিতে দেখা যাচ্ছে ৬৮ বছর বয়সে প্রধানমন্ত্রী মোদি পিঠে একটা বালিশ দিয়ে, বিছানায় বসে, ধ্যান করছেন। পরণে গেরুয়া বস্ত্র। আরেকটি ছবিতে দেখা যাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর হাত জড়ো করে গুহার মধ্যে প্রবেশ করছেন। নির্বাচন কমিশন মোদিকে হিমালয়ের এই মন্দির পরিদর্শনের অনুমতি দেয়, এবং মনে করিয়ে দেয় যে নির্বাচনী বিধি এখনও কার্যকর রয়েছে।

তৃণমূল ওই চিঠিতে জানিয়েছে, “সফরকালে তার কার্যক্রমের প্রতিটি মিনিট বিস্তারিত ও ব্যাপকভাবে প্রচারিত হচ্ছে, ভোটারদের সরাসরি অথবা পরোক্ষভাবে প্রভাবিত করার একটি ভয়ানক উদ্দেশ্য নিয়েই তা করা হচ্ছে। মোদি মোদি স্লোগানও পিছন থেকে শোনা যাচ্ছে। এই সব পদক্ষেপগুলি একেবারে পরিকল্পিত এবং খারাপ উদ্দেশ্য নিয়েই করা হচ্ছে। এমনকি নির্বাচনের দিনেও ভোটারদের প্রভাবিত করা হচ্ছে। এটা খুবই দুঃখজনক যে নির্বাচন কমিশন, এই গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ার সর্বোচ্চ সংস্থা চোখ ও কান বন্ধ করে বিধি লঙ্ঘনের অনুমতি দিচ্ছে।”

জাতীয় নির্বাচনের সপ্তম ও শেষ পর্বে আজ সাতটি রাজ্য ও এক কেন্দ্রীয় অঞ্চলে ভোট হচ্ছে। ফলাফল ২৩ মে।

  • আরও পড়ুন
  • লেখকের অন্যান্য লেখা