২৫ বছরেও উদ্ধার হয়নি আটকে পড়া বিনিয়োগ

আগের সংবাদ

আজিমপুরের ছোটমনি নিবাসে শিশু ‘গহীন’

পরের সংবাদ

ঢাকায় বেসরকারি আইসিডির অনুমতি দিচ্ছে এনবিআর

প্রকাশিত হয়েছে: মে ১৬, ২০১৯ , ৩:০১ অপরাহ্ণ | আপডেট: মে ১৬, ২০১৯, ৩:০১ অপরাহ্ণ

Avatar

জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) ঢাকায় বেসরকারি ইনল্যান্ড কন্টেইনার ডিপো (আইসিডি) স্থাপনের নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ঢাকা কাস্টমস হাউসের নিয়ন্ত্রণাধীন হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কন্টেইনার ভিলেজে কন্টেইনার পরিবহনে দ্রুতগতি আনতে এই বেসরকারি আইসিডি নির্মাণ হবে।
এনবিআর ঢাকা কাস্টমস হাউসকে লাইসেন্সিং, বিভিন্ন শর্তাদি এবং অন্যান্য প্রাসঙ্গিক বিষয়গুলো নিয়ে ব্যক্তিগত আইসিডি (অফ-ডক বা এয়ার মালবাহী স্টেশন নামেও পরিচিত) নিয়ে একটি নীতিমালা প্রণয়ন করতে বলেছে।
সম্প্রতি একজন জ্যেষ্ঠ শুল্ক কর্মকর্তা জানান, তারা ইতোমধ্যে নীতিমালার খসড়া চ‚ড়ান্ত করেছে এবং ঢাকা কাস্টমস হাউসের কমিশনার মো. মোয়াজ্জেম হোসেনের কাছে জমা দিয়েছেন। তিনি বলেন, ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি (এফবিসিসিআই), বাংলাদেশ গার্মেন্টস ম্যানুফ্যাকচারার্স এন্ড এক্সপোর্টার্স এসোসিয়েশন (বিজিএমইএ), বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স এবং বেসামরিক বিমান পরিবহন কর্তৃপক্ষসহ স্টেকহোল্ডারদের সঙ্গে আলোচনা করার পর তারা খসড়াটি চ‚ড়ান্ত করেছে। ২০১৮ সালের এপ্রিলে বে কার্গো সেন্টার লিমিটেড নামের একটি বেসরকারি মালবাহী সংস্থা আমদানি-রপ্তানি পণ্যের গুদামজাতকরণসহ অফ-ডক স্থাপন ও অন্যান্য সম্পর্কিত পরিষেবা সরবরাহের জন্য এনবিআরের কাছে অনুমোদনের আবেদন করে। এরপর আবেদনটির বিশ্লেষণ এবং আবেদন সম্পর্কে তাদের মতামত জানাতে এনবিআর কমিশনার ফখরুল আলমের নেতৃত্বে একটি কমিটি গঠন করে। বিমানবন্দর গুদামে চাপ কমানোর এবং বিমানবন্দরের মাধ্যমে আমদানি ও রপ্তানি দ্রুত নিষ্পত্তি এবং বাণিজ্য সহজতর করার জন্য ঢাকা, গাজীপুর ও নারায়ণগঞ্জের উপযুক্ত স্থানে অফ-ডক স্থাপনের জন্য বেসরকারি সংস্থাকে অনুমতি দেয়ার সুপারিশ করে কমিটি।
আইসিডি বা অফ-ডক একটি সুবিধা যার অধীনে বেসরকারি খাতের অপারেটরগুলোকে বন্দর এলাকার বাইরে আমদানি-রপ্তানির কন্টেইনারগুলো লোড এবং আনলোড করার অনুমতি দেয়া হয়।
বর্তমানে, চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউসের অধীনে অনেকগুলো আইসিডি রয়েছে যা প্রধানত কম রপ্তানিকৃত কন্টেইনারের সঙ্গে কম ঝুঁকি ও কম আমদানি শুল্কের ৩৭টি পণ্যের কন্টেইনার নিয়ে কাজ করে। আইসিডিগুলোতে, প্রাইভেট অপারেটরদের নির্বাচিত আমদানি আইটেম, খালি কন্টেইনার, সমস্ত রপ্তানি কন্টেইনার পরিচালনা এবং কাস্টমস ক্লিয়ারেন্সের আনুষ্ঠানিকতা পরিচালনা করা এবং কাস্টমস কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে আমদানি সামগ্রী সরবরাহ করা এবং রপ্তানি সামগ্রীগুলো আনস্টাফিং করার অনুমতি দেয়া হয়।
খসড়া নীতিতে কমিটি লাইসেন্সের শর্তাবলী, বিমানবন্দর থেকে অফ-ডকের দূরত্ব, অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোর ভেতরে প্রতিষ্ঠিত অফ-ডকের কার্যক্রম, রাজস্ব নিরাপত্তা, মূল্যায়ন প্রক্রিয়া, কোন ধরনের পণ্য এখানে অন্তর্ভুক্তিসহ বিভিন্ন বিষয় অন্তর্ভুক্ত করেছে।
খসড়া প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, লাইসেন্সিং সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে তবে এনবিআর অফ-ডকগুলোর আবেদন থেকে নির্বাচন করবে। গাজীপুরের কালিয়াকৈরের বে অর্থনৈতিক অঞ্চলটিতে অবস্থিত জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সির স্টাডির তথ্য উল্লেখ করে কমিটির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রায় ৪০ শতাংশ আমদানি পণ্য এইচএসআইএতে কার্গো কমপ্লেক্সে স্থানের অভাবে খোলা আকাশের নিচে রয়েছে।
বিমানের মালবাহী গুদামের ধারণক্ষমতা ২ লাখ টন হলেও এটি বছরে প্রায় ৩ লাখ টন পণ্য হ্যান্ডেল করে। বিমানের মাধ্যমে আমদানি-রপ্তানি গড়ে ৯ শতাংশ হারে বাড়ছে, তবে স্থান বাড়ছে না। কার্গোর পরিমাণের তুলনায় লোকবল ও সরঞ্জাম কম থাকায় প্রায়ই আমদানি হওয়া মালামালের ক্ষতি বা চুরি হচ্ছে।
প্রাইভেট অফ-ডক স্থাপন হলে কন্টেইনার হ্যান্ডেলিং সহজ এবং নিরাপত্তা উদ্বেগ কমবে। একই সঙ্গে আমদানি পণ্য দ্রুত ক্লিয়ারেন্স পাবে। আমদানির পণ্য সরবরাহকারী ট্রাক এবং ঢাকাভিত্তিক কাভার্ড ভ্যানগুলোও ঢাকা শহরে ট্র্যাফিক জ্যাম সৃষ্টি করে। বেসরকারি অপারেটর ঢাকা বিমানবন্দরের বাইরে স্থাপিত অফ-ডক থেকে মধ্যরাত থেকে পণ্য পরিবহন করবে। আবার অপারেটর বিমানবন্দর থেকে সরাসরি বন্ডেড ট্রাকে অফ-ডক পর্যন্ত পণ্য বহন করবে এবং একই দিনে পণ্য প্রবেশও করতে পারবে, তবে এইচএসআইএ থেকে আমদানিকৃত আইটেমগুলো অনুমোদনের জন্য প্রায় ৬-৭ দিন সময় লাগবে।