নিরপরাধ জাহালমের ক্ষতিপূরণের মামলা চলবে

আগের সংবাদ

আইপিএলে চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স

পরের সংবাদ

‘মেঘ আছে, চলুন এগিয়ে যাই’

বালাকোট হামলায় মোদির নির্দেশনা নিয়ে তোলপাড়

প্রকাশিত হয়েছে: মে ১৩, ২০১৯ , ১২:৪৩ অপরাহ্ণ | আপডেট: মে ১৩, ২০১৯, ১২:৪৩ অপরাহ্ণ

Avatar

পাকিস্তানের বালাকোটে বিমান হামলার আগে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ভারতীয় সেনা কর্মকর্তাদের বলেন, আকাশ মেঘলা থাকায় পাকিস্তানের রাডারে হামলাকারী বিমান দেখা যাবে না। মোদির মেঘতত্ত্ব প্রকাশ হয়ে যাওয়ার পর ঝড় উঠেছে টুইটারসহ অন্যান্য সামাজিক নেটওয়ার্কে। আমজনতা থেকে শুরু করে বিশ্লেষক ও রাজনৈতিক নেতারা সমালোচনায় মেতেছেন প্রধানমন্ত্রীর।
কটাক্ষসহ ব্যঙ্গ-বিদ্রুপ করতেও ছাড়ছেন না কেউই। বিষয়টি এমন পর্যায়ে গেছে, বিজেপির পক্ষ থেকে টুইট করেও পরে তা তুলে নিতে হয়েছে। তবে তার স্ক্রিন শট এখনো ফিরছে সোশ্যাল মিডিয়ার দেয়ালে দেয়ালে। খবর আনন্দবাজার।
গত ১৪ ফেব্রুয়ারি জম্মু-কাশ্মিরের পুলওয়ামায় আত্মঘাতী জঙ্গি হানায় ৪০ জন সিআরপিএফ জওয়ানের মৃত্যুর পর থেকেই ভারত-পাক সীমান্তে যুদ্ধের পরিস্থিতি তৈরি হয়। তার রেশ ধরেই গত ২৬ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানের আকাশে ঢুকে বালাকোটে জঙ্গি ঘাঁটিতে বোমা ফেলে আসে ভারতীয় বিমানসেনারা। একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে এই ঘটনা নিয়েই মেঘলা আকাশের তত্ত্ব এবং তথ্য দেন মোদি।
তার ভাষ্যে, হঠাৎই আবহাওয়া খারাপ হয়ে যায় (২৬ জানুয়ারি বালাকোটে হামলা চালানোর দিন)। আকাশে মেঘ ছিল… ভারি বৃষ্টি হয়েছিল। সন্দেহ ছিল আমরা (বায়ুসেনার যুদ্ধবিমান) মেঘের মধ্যে দিতে যেতে পারব কিনা। পর্যালোচনার সময় (বালাকোটে অভিযান) মোটের ওপর মতামত ছিল, দিনক্ষণ পিছিয়ে দেয়া যেতে পারে কিনা। আমার মনে দুটি বিষয় ছিল। এক, গোপনীয়তা…, দ্বিতীয়ত, আমি বলেছিলাম, আমি বিজ্ঞানী নই। এরপরই আমি বললাম, আকাশে প্রচুর মেঘ ও বৃষ্টি। এটারও সুবিধা আছে। আমি খালি চোখে যা বুঝি, মেঘ আমাদের সুবিধাও দিতে পারে। আমরা রাডারকে ফাঁকি দিতে পারি। সবাই দ্বিধাগ্রস্ত ছিলেন। শেষ পর্যন্ত আমি বলি, মেঘ আছে, চলুন এগিয়ে যাই।