সৌন্দর্যের কারিগর

আগের সংবাদ

আরামবাগকে ১-০ গোলে হারাল ব্রাদার্স

পরের সংবাদ

নুসরাত হত্যা: আরো দুজন গ্রেপ্তার

প্রকাশিত হয়েছে: এপ্রিল ২০, ২০১৯ , ১০:৩২ অপরাহ্ণ | আপডেট: এপ্রিল ২০, ২০১৯, ১০:৩২ অপরাহ্ণ

Avatar

ফেনীর আলোচিত সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যার ঘটনায় আরও দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আজ শনিবার (২০ এপ্রিল) রাঙামাটি ও কুমিল্লা পৃথক অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- এমরান হোসেন মামুন ও পরিকল্পনাকারী রানা।

পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) এর চট্টগ্রাম মেট্রো অঞ্চলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মঈনউদ্দিন জানান, শনিবার ভোর রাতে রাঙামাটি সদরের টিঅ্যান্ডটি আবাসিক এলাকার একটি বাসা থেকে রানাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

সোনাগাজীর চরগণেশ এলাকার জামাল উদ্দিনের ছেলে রানা ওই হত্যাকাণ্ডের পর পালিয়ে রাঙামাটি চলে গিয়েছিলেন বলে জানান তিনি।

গ্রেপ্তার রানা নুসরাত হত্যাকাণ্ডে পরিকল্পনাকারীদের একজন বলে জানিয়েছেন তদন্ত সংশ্লিষ্টরা।

এদিকে কুমিল্লার পদুয়ার বাজার এলাকা থেকে এমরান হোসেন মামুনকে পুলিশ আটক করেছে বলে দাবি করেছেন তার মা নুর নাহার বেগম।

এমরানের বাড়ি সোনাগাজীর চর গনেশ এলাকায়। তবে এ বিষয়ে কিছু জানেন না বলে জানিয়েছেন পিবিআই-এর পরিদর্শক শাহ আলম।

গত ৬ এপ্রিল ওই মাদ্রাসায় আলিম পরীক্ষার কেন্দ্রে গেলে ভবনের ছাদে ডেকে নিয়ে নুসরাতের গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে পালিয়ে যায় মুখোশধারীরা। এর আগে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদদৌলার বিরুদ্ধে করা শ্লীলতাহানির মামলা প্রত্যাহারের জন্য নুসরাতকে চাপ দেয় তারা।

পরে আগুনে ঝলসে যাওয়া নুসরাতকে প্রথমে স্থানীয় হাসপাতালে এবং পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১০ এপ্রিল রাতে নুসরাত মারা যান।

শ্লীলতাহানির মামলায় আগে থেকেই কারাবন্দি ছিলেন সিরাজ উদদৌলা।

এ ঘটনার পর হত্যাকাণ্ডের মূল পরিকল্পনাকারীসহ বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অনেকে রিমান্ডে রয়েছেন। তাদের দেয়া জবানবন্দিতেও বেশ কয়েকজনের নাম এসেছে।